দিল্লির ভোটের মুখে সংসদে রাম মন্দির ট্রাস্টের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর

প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণায় ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান ওঠে সংসদে। অযোধ্যায় বিশালাকৃতি মন্দির তৈরির জন্য সবার সমর্থনের আর্জিও জানান প্রধানমন্ত্রী

Updated By: Feb 5, 2020, 12:11 PM IST
দিল্লির ভোটের মুখে সংসদে রাম মন্দির ট্রাস্টের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর
ছবি-টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন: সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতো অযোধ্যায় রাম মন্দির তৈরির জন্য ট্রাস্ট গঠন করা হয়েছে বলে সংসদে ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ওই ট্রাস্টের নাম রাখা হয়েছে, শ্রী রাম জন্মভূমি তীর্থ ক্ষেত্র। রাম মন্দির তৈরি এবং বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত নেবে ওই ট্রাস্ট।

প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণায় ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান ওঠে সংসদে। অযোধ্যায় বিশালাকৃতি মন্দির তৈরির জন্য সবার সমর্থনের আর্জিও জানান প্রধানমন্ত্রী। উল্লেখ্য, গত ৯ নভেম্বর অবসরপ্রাপ্ত রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বাধীন ৫ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ ঐতিহাসিক রায়ে জানায়, অযোধ্যার বিতর্কিত ২.৭৭ একর জমিতে রাম মন্দির তৈরি হবে। অন্যত্র মসজিদ তৈরি নির্দেশ দেওয়া হয়। তারজন্য সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে ৫ একর জমি বরাদ্দ করবে রাজ্য সরকার। আর রাম মন্দির তৈরির জন্য ৩ মাসের মধ্যে তৈরি করতে হবে একটি ট্রাস্ট। যা কেন্দ্রের তত্ত্বাবধানে ওই ট্রাস্ট তৈরি হবে।

আরও পড়ুন- আগামী তিন বছরের মধ্যে ৩ বাহিনীকে একসূত্রে গেঁথে বড়সড় বদল, জানালেন রাওয়াত

এই রায়ে বলা তিন মাসের মেয়াদ সম্পূর্ণ হবে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি। তার কয়েকদিন আগেই প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা রাজনৈতিকভাবে তাত্পর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। সামনেই দিল্লি বিধানসভা নির্বাচন। সংসদে ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে এনআরসি এখনই নয়। শাহিনবাগ নিয়ে মেরুকরণের যে তর্জা চলছে, রামমন্দির ইস্যু নতুন করে অক্সিজেন জোগাতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। রামমন্দিরকে হাতিয়ার করে ‘দিল্লির বৈতরণী’ পার করার গেরুয়া শিবির মরিয়া চেষ্টা করবে বলে মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।