লোকসভা ভোটের আগে অ্যাসিড টেস্টে রাহুল গান্ধীর মুখ রক্ষা করল পঞ্জাব

উত্তরপ্রদেশে নাক কাটা গেছে। উত্তরাখণ্ডেও ভরাডুবি। লোকসভা ভোটের আগে অ্যাসিড টেস্টে রাহুল গান্ধীর মুখ রক্ষা করল পঞ্জাব। কংগ্রেস সহ সভাপতির উপরি পাওনা বিজেপির ফসকে যাওয়া গোয়া। নরেন্দ্র মোদীর মতো রাহুল গান্ধীর কাছেও প্রেস্টিজ ফাইট ছিল উত্তরপ্রদেশ। বিহার মডেল ফলো করে অখিলেশের হাত ধরেছিলেন কংগ্রেস সহ সভাপতি। কিন্তু উত্তরপ্রদেশে হিসেব গেল উলটে।

Updated By: Mar 11, 2017, 07:59 PM IST
লোকসভা ভোটের আগে অ্যাসিড টেস্টে রাহুল গান্ধীর মুখ রক্ষা করল পঞ্জাব

ওয়েব ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশে নাক কাটা গেছে। উত্তরাখণ্ডেও ভরাডুবি। লোকসভা ভোটের আগে অ্যাসিড টেস্টে রাহুল গান্ধীর মুখ রক্ষা করল পঞ্জাব। কংগ্রেস সহ সভাপতির উপরি পাওনা বিজেপির ফসকে যাওয়া গোয়া। নরেন্দ্র মোদীর মতো রাহুল গান্ধীর কাছেও প্রেস্টিজ ফাইট ছিল উত্তরপ্রদেশ। বিহার মডেল ফলো করে অখিলেশের হাত ধরেছিলেন কংগ্রেস সহ সভাপতি। কিন্তু উত্তরপ্রদেশে হিসেব গেল উলটে।

গেরুয়া ভেলকি উত্তরাখণ্ডেও। পাহাড় ঘেরা রাজ্যে বিজেপি-কংগ্রেস হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। ইঙ্গিত ছিল বুথ ফেরত সমীক্ষায়। তা ছাপিয়ে  উত্তরাখণ্ডেও গেরুয়া ঝড়। গ্রামীণ হরিদ্বার ও কিচ্চা, দুটি আসনেই পরাজিত বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী হরিশ রাওয়াত। মণিপুরে ১৫ বছর ধরে ক্ষমতায় রয়েছে কংগ্রেস। সেখানেও এবার পদ্মের ম-ম গন্ধ।

২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের আগে এটাই ছিল সেমিফাইনাল। স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্নের মুখে রাহুলের নেতৃত্ব। টিভির পর্দায় ট্যালিতে বিজেপি যখন চড়চড়িয়ে বাড়ছে, তখন হঠাত্‍ই টুইট কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিংয়ের। যাতে তিনি লিখেছেন, ""রাহুলের পদত্যাগ করা উচিত নয়। কংগ্রেসে নেহরু, গান্ধী পরিবারের প্রভাব অপরিসীম। এই প্রভাব ভবিষ্যতেও থাকবে।''

দিগ্বিজয়ের এই টুইটে অনেকেই অন্য গন্ধ পাচ্ছেন। এ কি কঠিন সময়ের সান্ত্বনা, নাকি ঘুরিয়ে যুবরাজের প্রতি অনাস্থা প্রকাশ?  দমবন্ধ করা এই পরিস্থিতিতে রাহুলকে স্বস্তির হাওয়া এনে দিল পঞ্চ নদের তির।

বুথ ফেরত সমীক্ষায় পঞ্জাবে পালাবদলের ইঙ্গিত ছিলই। মুখ্যমন্ত্রী প্রকাশ সিংহ বাদলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে তিতিবিরক্ত ছিলেন রাজ্যের মানুষ। একার জোরে শিরোমণি অকালি দল ও বিজেপির ১০ বছরের রাজত্বে ইতি টানল কংগ্রেস। সেই সঙ্গে   পঞ্জাবে আপের মাথা তোলার স্বপ্নও চুরমার করে দিয়েছে তারা। যা খারাপ সময়েও অক্সিজেন জুগিয়েছে রাহুলকে। রাজনৈতিক কেরিয়ারের শেষ যুদ্ধ ঘোষণা করে, লড়াইয়ে নেমেছিলেন পঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অমরিন্দর সিং। 

শ্যুটিংয়ে গাড়ির ধাক্কায় জখম জিত্‌! দেখুন ভিডিও

সিধু দলে আসায় সুবিধা হয়েছে কংগ্রেসের। বিজেপি থেকে কংগ্রেসে এসেই জিতে নিয়েছেন অমৃতসর পূর্ব আসনটি। গেরুয়া ঝড়ে কংগ্রেসের অবস্থা যখন ডুবুডুবু, তখন দ্বিতীয় লাইট হাউস হিসেবে উঠে আসছে গোয়ার নাম। একক সংখ্যা গরিষ্ঠতা না পেলেও, গোয়ায় সবচেয়ে বেশি আসনে জয়ী কংগ্রেস। হাতের ঘায়ে পরাস্ত গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী লক্ষ্মীকান্ত পারসেকর।

উত্তরপ্রদেশে সাইকেল গোঁত্তা খেয়ে পড়ার পর, দলের অন্দরে রব উঠেছে, বেটে কো বিঠাও, বাপ কো লেআও। পরিবারতন্ত্রের ঘেরাটোপে বন্দি কংগ্রেসে এখনও তেমন সুর নেই। গেরুয়া ঝড়ের মধ্যে ব্যতিক্রমী হয়ে রাহুলের মান বাঁচাল পঞ্জাব।