সাভারকার নিয়ে সমালোচনা বরদাস্ত নয়, নাম না করে রাহুলকে সতর্ক শরিক শিবসেনার

তিনিও নাম না করে স্পষ্ট বুঝিয়ে দিলেন, সাভারকারকে নিয়ে সমালোচনা বরদাস্ত করা হবে না। গান্ধীজি, জওহরলাল নেহরুকে শিবসেনা সম্মান করে, তাই সাভারকারকে নিয়ে কংগ্রেসের সংযত মন্তব্য হওয়া উচিত

Edited By: সোমনাথ মিত্র | Updated By: Dec 15, 2019, 12:31 PM IST
সাভারকার  নিয়ে সমালোচনা বরদাস্ত নয়, নাম না করে রাহুলকে সতর্ক শরিক শিবসেনার
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: জোটের ঘরে ঠাণ্ডা যুদ্ধ! ঘটনাক্রম সে দিকেই এগোচ্ছে। শনিবার রামলীলা ময়দানে রাহুল গান্ধী জানান, তিনি রাহুল সাভারকার নন। রাহুল গান্ধী। ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই নেই। বিনায়ক সাভারকারের নাম উদ্ধৃত করতেই রাহুলকে এক হাত নিলেন ‘নয়া বন্ধু’ শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত।

তিনিও নাম না করে স্পষ্ট বুঝিয়ে দিলেন, সাভারকারকে নিয়ে সমালোচনা বরদাস্ত করা হবে না। গান্ধীজি, জওহরলাল নেহরুকে শিবসেনা সম্মান করে, তাই সাভারকারকে নিয়ে কংগ্রেসের সংযত মন্তব্য হওয়া উচিত। শিবসেনার এই বিবৃতি আসার পরই ফের প্রশ্ন উঠতে শুরু করে তাহলে কি মহারাষ্ট্রের জোট সরকারে ফাটল ধরছে?

লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশের সময় প্রত্যক্ষ সমর্থন করেছিল শিবসেনা। এ নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেন রাহুল গান্ধী। নাম না করে রাহুলের কটাক্ষ, এই বিলকে সমর্থন করার অর্থ সংবিধানকে অসম্মান করার সামিল। সূত্রে খবর, শরিক শিবসেনাকে চাপ সৃষ্টি করা হয় সিএবি-র বিরোধিতা করতে। রাজ্যসভায় বিল পাশের সময় কেন্দ্রের এই পদক্ষেপে সমালোচনা করে বটে, কিন্তু ভোটাভুটির সময় কক্ষ ত্যাগ করে শিবসেনার সাংসদরা। এতে বিজেপিকে আরও সুবিধা করে দেওয়া বলে মত বিশেষজ্ঞদের।