close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

উন্নাওকাণ্ডে নির্যাতিতার বাবাকে হত্যায় কুলদীপ সেঙ্গারের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন হল আদালতে

উন্নওকাণ্ডে অভিযুক্ত বিধায়ক কুলদীপ সেঙ্গারের বিরুদ্ধে এবার নির্যাতিতার বাবাকে খুনের অভিযোগে চার্জ গঠন করল পুলিস। মঙ্গলবার দিল্লির একটি আদালতে সেঙ্গারের বিরুদ্ধে চার্জগঠন হয়। তাতে কুলদীপ সেঙ্গারের ভাই অতুল সেঙ্গারকেও অভিযুক্ত করা হয়েছে। অভিযুক্ত করা হয়েছে ৩ পুলিসকর্মীকেও। 

Updated: Aug 13, 2019, 08:38 PM IST
উন্নাওকাণ্ডে নির্যাতিতার বাবাকে হত্যায় কুলদীপ সেঙ্গারের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন হল আদালতে

নিজস্ব প্রতিবেদন: উন্নওকাণ্ডে অভিযুক্ত বিধায়ক কুলদীপ সেঙ্গারের বিরুদ্ধে এবার নির্যাতিতার বাবাকে খুনের অভিযোগে চার্জ গঠন করল পুলিস। মঙ্গলবার দিল্লির একটি আদালতে সেঙ্গারের বিরুদ্ধে চার্জগঠন হয়। তাতে কুলদীপ সেঙ্গারের ভাই অতুল সেঙ্গারকেও অভিযুক্ত করা হয়েছে। অভিযুক্ত করা হয়েছে ৩ পুলিসকর্মীকেও। 

গত মাসেই উত্তর প্রদেশের রাইবেরিলিতে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় উন্নাওয়ের নির্যাতিতা তরুণীর ২ কাকিমার। দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে বর্তমানে দিল্লিতে চিকিৎসাধীন নির্যাতিতা নিজে। তাদের গাড়িতে ধাক্কা মারে একটি ট্রাক। তবে ক্রমশ দানা বাঁধে রহস্য। নিছকই দুর্ঘটনা না খুনের চেষ্টা, তদন্তে নেমে এখনও তল পায়নি পুলিস। তবে এর পর ফের গ্রেফতার করা হয় কুলদীপ সেঙ্গারকে। 

 

এর মধ্যে নির্যাতিতার বাবাকে খুনের চেষ্টায় চার্জ গঠন হল কুলদীপ সেঙ্গার-সহ অন্যান্য অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে। চার্জ গঠনের সময় বিচারক জানিয়েছেন, 'ভুয়ো অস্ত্র মামলায় ফাঁসিয়ে অত্যাচার করা হয়েছে নির্যাতিতার বাবাকে। তার পকেটে দেশি বন্দুক রেখে তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। ভুয়ো মামলা দিয়ে থানায় নিয়ে গিয়ে পেটানো হয়েছে তাঁকে।' অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কুলদীপ। 

চিটফান্ডের টাকায় যেসব পুজো হয়, তাদেরকেই নোটিস পাঠিয়েছে আয়কর দফতর, পাল্টা দাবি বিজেপির

আদালত জানিয়েছেন, 'উন্নাওকাণ্ডে বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের অংশ হিসাবে এই কাণ্ড ঘটিয়েছে অভিযুক্তরা। মামলা থেকে তাঁকে দূরে রাখতেই এই কাজ করা হয়েছে।' বিচারক জানিয়েছেন, ঘটনার সময় কুলদীপ সেঙ্গার দিল্লিতে থাকলেও অভিযুক্ত পুলিসকর্মীদের সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল। তাঁর নির্দেশেই পুলিসকর্মীরা তাঁকে রাস্তা থেকে থানায় তুলে নিয়ে এসে ব্যাপক মারধর করে। যার ফলে নির্যাতিতার বাবার দেহে ১৮টি গুরুতর আঘাতের চিহ্ন মিলেছে।