শুখা একটা পাহাড়কে ঘন সবুজ করলেন এক ইলেকট্রিক মিস্ত্রি

ভালোবাসার কী কোনও রং আছে? বিহারের সিকান্দারের কাছে ভালোবাসার রং সবুজ। ভালোবেসে গয়ার রুক্ষ পাহাড়কে সবুজ করে দিয়েছেন সিকান্দার। পাথর মোড়া ন্যাড়া পাহাড়ে সিকান্দার হাজার হাজার গাছ লাগিয়েছেন। পাহাড় এখন সবুজ জঙ্গল।

Updated By: Jun 28, 2016, 10:48 PM IST
শুখা একটা পাহাড়কে ঘন সবুজ করলেন এক ইলেকট্রিক মিস্ত্রি

ব্যুরো: ভালোবাসার কী কোনও রং আছে? বিহারের সিকান্দারের কাছে ভালোবাসার রং সবুজ। ভালোবেসে গয়ার রুক্ষ পাহাড়কে সবুজ করে দিয়েছেন সিকান্দার। পাথর মোড়া ন্যাড়া পাহাড়ে সিকান্দার হাজার হাজার গাছ লাগিয়েছেন। পাহাড় এখন সবুজ জঙ্গল।

হেমন্তের অরণ্যে পোস্টম্যান হওয়ার মতো ভাবনা ছিলনা। এ আরেক যুগল প্রসাদ। আরন্যকের যুগল প্রসাদের মত সিকান্দারও সবুজের স্বপ্ন দেখেন। যে সবুজ শিকড় গজিয়েছে তাঁর হৃদয়ের অন্তঃস্থলে। হৃদয় ছাঁচা সেই সবুজের রেশ সিকান্দার ছড়িয়ে দিয়েছেন গয়ার ব্রহ্মযোনির শুকনো শিখরেও। শুখা একটা পাহাড় এখন ঘন সবুজ। সবুজের শপথ নিয়ে সেই ৮২ সাল থেকে লেগে রয়েছেন সিকান্দার। এখন গোটা ব্রহ্মযোনি পাহাড়ে ১০ হাজারের বেশি গাছ। ফলের গাছ, ফুলের গাছ।

পেশায় ইলেকট্রিক মিস্ত্রি। কিন্তু সিকান্দারকে সবাই চেনে পেড়বাবা  নামে। তিনি একা, কারও সাহায্য ছাড়াই ন্যাড়া পাহারকে সবুজ করে দিয়েছেন, ভালোবেসে গাছগুলোর নামও দিয়েছেন।

যখন শুরু করেছিলেন, তখন পড়শিরা বলত পাগলামি। এখন সবাই বলে ভাগ্যিস সিকান্দার ছিল, শুখা পাহাড়টা সবুজ হয়ে গেছে।