কোন লজ্জার হার এখনও হজম করতে পারেননি Ravi Shastri? জানতে পড়ুন

আইসিসি প্রতিযোগিতার তিনটি মহা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ হারকে গুরুত্ব দিতে রাজি নন রবি শাস্ত্রী।   

Updated By: Dec 7, 2021, 07:33 PM IST
কোন লজ্জার হার এখনও হজম করতে পারেননি Ravi Shastri? জানতে পড়ুন
এখনও ৩৬ রানে অল অউট হওয়া ভুলতে পারেননি রবি শাস্ত্রী। ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: হেড কোচ হিসেবে তাঁর আমলে আইসিসি (ICC) প্রতিযোগিতার তিনটি মহা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ হেরেছে টিম ইন্ডিয়া (Team India)। এবং কাকতালীয় ভাবে তিনটি ম্যাচেই নিউজিল্যান্ডের (New Zealand) কাছে কার্যত উড়ে গিয়েছিল বিরাট কোহলির (Virat Kohli) দল। ২০১৯ সালে কিউইদের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে হেরে যাওয়ার পর চলতি বছর ফের জোড়া ধাক্কা খেয়েছিল ভারত। গত জুনে কেন উইলিয়ামসনের দলের কাছে বিশ্ব টেস্ট ফাইনালে পরাজয় স্বীকার করার পর গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে হেরেছিল ভারত। তবুও এমন লজ্জার তিন হার বেমালুম ভুলে, গত বছর আডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৩৬ রানে অল আউট হওয়াকেই 'বড় হার' হিসেবে মনে করেন রবি শাস্ত্রী (Ravi Shastri)।  

শাস্ত্রী বলেছেন, "দেখুন ভারতীয় দলের কোচের ভাগ্য সরু সুতোর উপর ঝোলে। এই কাজে পালিয়ে বাঁচা যাবে না। প্রথম দিন থেকেই আপনাকে কটাক্ষ হজম করার জন্য তৈরি থাকতে হবে। তাই জানতাম ৩৬ রানে অল আউট হয়ে যাওয়ার পর আমার দিকে, আমার দলের দিকে গোলাগুলি ধেয়ে আসবে। তবে স্বীকার করতে দ্বিধা নেই যে ৩৬ রানে অল আউট হয়ে যাওয়া কোচ হিসেবে আমার কেরিয়ারে সবচেয়ে লজ্জার হার। তাই সেই হার এখনও হজম করতে পারিনি।" 

36 score board

আরও পড়ুন: Exclusive: কোচ Rahul Dravid কোথায় আলাদা? জানিয়ে দিলেন টেস্টে 'পুনর্জন্ম' নেওয়া Wriddhiman Saha

গত অস্ট্রেলিয়া সফরের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ২৪৪ রান করার পর রবিচন্দ্রন অশ্বিন, উমেশ যাদব ও জসপ্রীত বুমরার দাপটে ১৯১ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল অজিদের প্রথম ইনিংস। তবে প্রথম ইনিংসে ৫৩ রানে এগিয়ে থাকলেও সুযোগের ফায়দা তুলতে পারেনি কোহলিবাহিনী। প্যাট কামিন্স (৪/২১) ও জশ হ্যাজেলউডের (৫/৮) দাপটে মাত্র ৩৬ রানে শেষ হয়ে যায় ভারতের দ্বিতীয় ইনিংস।  

ব্যাটিং ভরাডুবির প্রসঙ্গ আসতেই শাস্ত্রী ফের বলেন, "দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ হওয়ার সময় আমাদের স্কোরবোর্ডে ১ উইকেটে ৯ রান ছিল। কিন্তু তৃতীয় দিন মাত্র কয়েক ঘণ্টায় সব বদলে গেল! কেন এমন ঘটেছিল সেটা এখনও বুঝতে পারিনি। সেই টেস্ট হারার পর পুরো দিন সবাই চুপ করে বসেছিলাম।"  

সেই টেস্ট শেষ হতেই ব্যক্তিগত কারণে দেশে ফিরে এসেছিলেন কোহলি। তবে ভারত কিন্তু মাথা নত করেনি। বরং অজিঙ্কা রাহানের নেতৃত্বে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে দেশে ফিরেছিলেন চেতেশ্বর পূজারা-ঋষভ পন্থরা। 

কোন মন্ত্রে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল টিম ইন্ডিয়া? শাস্ত্রী শেষে যোগ করলেন, "৩৬ রানে অল আউট হওয়া শুধু মাঠে থাকা এগারো জনের ব্যর্থতা ছিল না। কোচ হিসেবে সেটা আমার ব্যর্থতাও ছিল। তাই ছেলেদের বলেছিলাম, 'এই ৩৬-কে ব্যাজ হিসেবে নিজেদের জামার পকেটে আটকে রেখে দাও। সেটা প্রতি মুহূর্তে নজরে এলেই তোমাদের আত্মবিশ্বাস আবার ফিরে আসবে। যদি তোমরা এই অবস্থা থেকে সিরিজ জিততে পার, তাহলে কেউ আর খোঁচা দিতে পারবে না।"  

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)