কোহলির অনুপস্থিতিতে বিরাট ক্ষতি হবে অস্ট্রেলিয়ারও! কিন্তু কেন?

কোহলির শূন্যতা ভারতীয় দলে কেউ পূরণ করতে পারবেন না। বিরাটকে ছাড়া ভারতীয় দল যেমন সমস্যার সম্মুখীন হবে তেমন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও ক্ষতির সম্মুখীন হবে।

Updated By: Nov 14, 2020, 11:03 AM IST
কোহলির অনুপস্থিতিতে বিরাট ক্ষতি হবে অস্ট্রেলিয়ারও! কিন্তু কেন?

নিজস্ব প্রতিনিধি: পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে অস্ট্রেলিয়া সফরের মাঝপথেই দেশে ফিরবেন বিরাট কোহলি। অ্যাডিলেড টেস্ট খেলেই দেশে ফেরার বিমান ধরবেন ভারত অধিনায়ক। স্ত্রী অনুষ্কা শর্মার পাশে থাকতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্যাপ্টেন কোহলি। বিরাটের এই সিদ্ধান্তকে অগ্রাধিকার দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডও। তবে সিরিজের বাকি ৩টি টেস্টে কোহলির না থাকাটাই ভারতীয় দলের বিগ ফ্যাক্টর।

আরও পড়ুন- চেনা ছন্দে কপিল দেব, সুস্থ হয়ে ফের মাঠে নামলেন কপিল দেব

ক্রিকেটমহলের ধারণা, কোহলিকে ছাড়া ভারতীয় দলের পক্ষে অস্ট্রেলিয়াকে প্রতিরোধ করা অনেক কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। টেস্ট সিরিজে তাই অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞই অস্ট্রেলিয়াকে এগিয়ে রাখছেন। কোহলির শূন্যতা ভারতীয় দলে কেউ পূরণ করতে পারবেন না। বিরাটকে ছাড়া ভারতীয় দল যেমন সমস্যার সম্মুখীন হবে তেমন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও ক্ষতির সম্মুখীন হবে। আধুনিক ক্রিকেটে বিরাট কোহলিই হলেন ইউএসপি। সীমিত ওভারের ক্রিকেট হোক কিংবা টেস্ট, যাবতীয় লাইমলাইটের কেন্দ্রবিন্দুতেই রানমেশিন। কোহলির অনুপস্থিতিতে তাই এক ধাক্কায় অনেকটা টিআরপি কমার আশঙ্কা দেখছে অস্ট্রেলিয়ার একটি সম্প্রচারকারী সংস্থা। শুধুমাত্র ভারত-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজ সম্প্রচার করবে অস্ট্রেলিয়ার ফ্রি টু এয়ার ব্রডকাস্ট মিডিয়া 'চ্যানেল সেভেন'। যেখানে সীমিত ওভারের ম্যাচগুলির সম্প্রচার স্বত্ব পেয়েছে সেখানকার পেইড চ্যানেল 'ফক্স স্পোর্টস'। অস্ট্রেলিয়ার স্পোর্টস চ্যানেলগুলির মধ্যে এই দুটি চ্যানেলের চিরাচরিত লড়াই রয়েছে। তাই কোহলির অনুপস্থিতিতে বিরাট ক্ষতির সম্মুখীন হবে অস্ট্রেলিয়া মিডিয়া। 

 

আরও পড়ুন- করোনায় আক্রান্ত লিভারপুলের মিশরীয় তারকা সালহা

অ্যাডিলেডে দিন রাতের টেস্ট সম্প্রচার করবে ফক্স স্পোর্টস এবং চ্যানেল সেভেন দুটি সম্প্রচারকারী সংস্থাই। ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফরে তাই এবার আয়ের মুখ না দেখার আশঙ্কাই করছে চ্যানেল সেভেন। কিন্তু সীমিত ওভারের ক্রিকেটের সম্প্রচার স্বত্ব পাওয়ায় ফক্স স্পোর্টস আবার বিরাট লাভের আশা দেখছে। কোহলির না থাকাটা যেমন ভারতীয় দলের কাছে বিরাট ধাক্কা, তেমনই অস্ট্রেলিয়ার কাছেও বিরাট ক্ষতি।