বিশ্বকাপ ফাইনালে মাঠে ঢোকার জন্য কঠিন শাস্তির মুখে চার দর্শক

 বিশ্বকাপ ফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বিঘ্ন ঘটিয়েছিলেন তারা।

Updated By: Jul 18, 2018, 07:35 PM IST
বিশ্বকাপ ফাইনালে মাঠে ঢোকার জন্য কঠিন শাস্তির মুখে চার দর্শক

নিজস্ব প্রতিনিধি : হুট করে মাঠে ঢুকে পড়েছিলেন চারজন। পুলিশের পোশাক পরে। তাও আবার বিশ্বকাপ ফাইনালে। তিনজন মহিলা ও একজন পুরুষ। রাশিয়ায় বিশ্বকাপ ফাইনালে এমন কাণ্ড ঘটিয়ে গোটা বিশ্বের নজর নিজেদের দিকে ফিরিয়েছিলেন এই চারজন। তাদের দুঃসাহস দেখে অবাক হয়েছিল গোটা বিশ্ব। ভেরুনিকা নিকুলশিনা, অলগা পাখতুসোভা ও অলগা কুরাসোভা ও একমাত্র পুরুষ দর্শক পিতর ভেরজিলভ কৃতকর্মের জন্য যে গুরুতর শাস্তি পাবেন তা কাম্য ছিল। 

আরও পড়ুন-  প্রথম দিনেই কোটি কোটি টাকায় বিক্রি রোনাল্ডোর জার্সি

পুতিনবিরোধী 'পুশি রায়ট' দলের সদস্য এই চারজন। সব থেকে বড় ব্যাপার, ফ্রান্স-ক্রোয়েশিয়ার ফাইনাল ম্যাচে সেদিন মাঠে হাজির ছিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন। চার দর্শক যখন মাঠে ঢুকলেন, তাণ্ডব করলেন। সেসবই পুতিন দেখলেন সামনে থেকে। ফলে ব্যাপারটা যে ভয়ানক পরিণতির দিকে এগোবে তা বলাবাহুল্য। ক্ষমতা দেখাতে মাঠে ঢুকে পড়ার জন্য কড়া শাস্তি পেয়েছেন চার দর্শক। ১৫ দিনের জেল ও আগামী তিন বছর রাশিয়ার কোনো খেলা মাঠে বসে দেখতে পাবেন না তাঁরা। 

আরও পড়ুন-  আর্জেন্টিনায় দেখা মিলল ৯২০ কেজির এমবাপের

সেই চারজনের একজন কুরাসোভা জানিয়েছেন, তাঁদের মূল উদ্দেশ্য ছিল বাক্‌স্বাধীনতার পক্ষে সওয়াল ও ফিফার নীতির বিরুদ্ধে বিরোধিতা জ্ঞাপন। খেলার মাঠে হঠাত্ করে মাঠে দর্শক ঢুকে পড়ার ঘটনা একেবারে নতুন কিছু নয়। তবে বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনালে কঠোর নিরাপত্তাবলয় গলে মাঠে দর্শক ঢুকে পড়ার ঘটনা বিরল! বিশ্বকাপ ফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বিঘ্ন ঘটিয়েছিলেন তারা। সেইসঙ্গে প্রশ্ন উঠেছিল রাশিয়ায় বিশ্বকাপের নিরাপত্তা নিয়েও। এত ঘটনার পর এই চারজনকে যে বিনা শাস্তিতে ছেড়ে দেওয়া হবে না তা আন্দাজ করা গিয়েছিল।

ফাইনাল ম্যাচে এমন পরিস্থিতিতে হকচকিয়ে গিয়েছিলেন দুই দলের খেলোয়াড়রা। এক তরুণী এমবাপের কাছে গিয়ে হাত মিলিয়ে ফেলেছিলেন। নিরাপত্তারক্ষীরা সাদা শার্ট আর কালো ট্রাউজার পরা ওই তরুণীকে জাপটে ধরে মাঠ থেকে বের করেন। পুরুষ দর্শক ছুটে গিয়েছিলেন ক্রোয়েশিয়ান ফুটবলার লভরেনের কাছে। ক্রোয়েট ডিফেন্ডার বিরক্ত হয়ে তাঁকে রীতিমতো টানতে টানতে মাঠছাড়া করেন।