close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

CFL 2019: সোমবার ইস্টবেঙ্গল মাঠে রেফারি নিগ্রহের ঘটনায় দোষীদের দ্রুত শাস্তি দিতে চায় IFA

শুধু রাজ্য ফুটবল সংস্থার শাস্তিই নয়, কোড অব কন্ডাক্ট ভাঙার জন্য কোয়েস ইস্টবেঙ্গলেও শাস্তির মুখে এরা।    

Updated: Sep 10, 2019, 06:09 PM IST
CFL 2019: সোমবার ইস্টবেঙ্গল মাঠে রেফারি নিগ্রহের ঘটনায় দোষীদের দ্রুত শাস্তি দিতে চায় IFA

নিজস্ব প্রতিবেদন : বৃহস্পতিবার ইস্টবেঙ্গল ম্যাচের আগেই রেফারি নিগ্রহের নিষ্পত্তি করতে চাইছে আইএফএ। সোমবার ইস্টবেঙ্গল মাঠে পিয়ারলেস-ইস্টবেঙ্গল ম্যাচ শেষে লাল-হলুদ ফুটবলারদের হাতে নিগৃহীত হতে হয় রেফারি দীপু রায়কে। সোমবার ম্যাচ শেষে রাত সাড়ে দশটা পর্যন্ত অপেক্ষা করেও রেফারি রিপোর্ট হাতে পাননি আইএফএ সচিব। মঙ্গলবার রাজ্য ফুটবল সংস্থায় ছুটি। সূচি অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার কালীঘাট এমএসের বিরুদ্ধে ম্যাচ ইস্টবেঙ্গলের। তার আগেই জরুরি ভিত্তিতে শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির বৈঠক ডেকে দোষীদের শাস্তি দিতে চাইছে রাজ্য ফুটবল সংস্থা।

 

রেফারি নিগ্রহে নাম জড়িয়েছে ইস্টবেঙ্গলের দুই ফুটবলার ডিকা আর মেহেতাব সিং। ইস্টবেঙ্গল ম্যানেজার ও গোলকিপার কোচ অভ্র মণ্ডলের বিরুদ্ধে রেফারি নিগ্রহের অভিযোগ রয়েছে। আইএফএ সচিব পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, বড় দল বলে কেউ পার পাবেন না। শুধু রাজ্য ফুটবল সংস্থার শাস্তিই নয়, কোড অব কন্ডাক্ট ভাঙার জন্য কোয়েস ইস্টবেঙ্গলেও শাস্তির মুখে এরা।    

আরও পড়ুন - কোটলায় কোহলির নামে স্ট্যান্ডের উদ্বোধনে হাজির থাকবে টিম ইন্ডিয়া!

তবে হেইমি কোলাডোকে শাস্তি দেওয়ার মতো সাহসী সিদ্ধান্ত কি নিতে পারবে রাজ্য ফুটবল সংস্থা? ইস্টবেঙ্গল-পিয়ারলেস ম্যাচের একেবারে শেষদিকে মাটিতে পরে থাকা পিয়ারলেস গোলকিপারকে লাথি মারেন স্প্যানিশ কোলাডো।তা রেফারির চোখ এড়িয়ে যায়। কিন্তু টিভি ক্যামেরায় স্পষ্ট দেখা যায় কোলাডোর লাথি মারার দৃশ্য। টিভি ফুটেজ দেখে শাস্তি দেওয়ার ঘটনা ইদানিং কালে আইএফএ নেয়নি। তাই ট্র্যাডিশন ভেঙে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপণ করার চ্যালেঞ্জ জয়দীপ মুখার্জির সামনেও।