IPL 2021: কীভাবে বায়ো বাবল ভেদ করে Coronavirus ঢুকল ? জেনে নিন Sourav Ganguly র উত্তর

বহু টাকা ব্যয়ে নির্মিতি বায়ো বাবল অর্থাৎ জৈব বলয় সুরক্ষা ভেদ করে কী করে করোনা ভাইরাস ঢুকে পড়ল আইপিএলে? 

Updated By: May 6, 2021, 12:47 PM IST
IPL 2021: কীভাবে বায়ো বাবল ভেদ করে Coronavirus ঢুকল ? জেনে নিন Sourav Ganguly র উত্তর

নিজস্ব প্রতিনিধি: কোভিড (COVID-19) ধাক্কায় দুলে গিয়েছিল আইপিএল (IPL 2021)। একাধিক ফ্র্যাঞ্চাইজির প্লেয়ার থেকে সাপোর্ট স্টাফের শরীরে বাসা বাঁধে এই মারণ ভাইরাস। বাতিল হয় ম্যাচ। পরে পরিস্থিতি বেগতিক দেখে বিসিসিআই (BCCI) অনির্দিষ্ট কালের জন্য এই মরসুমে আইপিএল (IPL 2021) স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন যে, বহু টাকা ব্যয়ে নির্মিতি বায়ো বাবল অর্থাৎ জৈব বলয় সুরক্ষা ভেদ করে কী করে করোনা ভাইরাস ঢুকে পড়ল আইপিএলে? তাহলে কি বায়ো বাবল আদৌ সুরক্ষিত ছিল না! যদিও অজি ক্রিকেটার অ্যাডাম জাম্পা বলেছেন যে, তিনি ভারতের বায়ো বাবল কখনই সুরক্ষিত মনে করেননি। 

আইপিএল স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর বিসিসিআই (BCCI) প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly) দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। তিনি জানালেন যে, কীভাবে এমনটা হলো বলা কঠিন। সৌরভ বলছেন, "আমার মনে হয় না, বায়ো বাবল ভাঙা হয়েছে। সেরকম কোনও রিপোর্ট আমাদের নেই। কিন্তু কীভাবে করোনা ভাইরাস আইপিএলে ঢুকল, এটা বলো খুব কঠিন। আমাদের দেশে এত মানুষ কীভাবে আক্রান্ত হচ্ছেন সেটা বলাও কিন্তু খুবই কঠিন।" বায়ো বাবল ভেদ করে কোভিড আক্রমণের প্রসঙ্গে সৌরভের যুক্তি, "বিশ্ব জুড়ে পেশাদাররা করোনা নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছেন না। ইংল্যান্ডে যখন করোনার দাপট ছিল তখন করোনা আক্রান্ত হয়েছিল ইংলিশ প্রিমিয়র লিগ। ম্যাঞ্চেস্টার সিটি, আর্সেনালের প্লেয়াররা সংক্রামিত হয়েছিল।" আইপিএলের ম্যাচ পুণরায় আয়োজনের প্রসঙ্গে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক বলছেন,  "প্রিমিয়র লিগ রিশিডিউল করা গিয়েছিল। ওদের ৬ মাস ধরে মরসুম চলে। ওরা করতে পারে। কিন্তু আমাদের খুব ঠাঁসা সূচি। আমাদের খেলোয়াড়দেরকে তাঁদের নিজের দেশের জন্যও ছাড়তে হয়। ফলে রিশিডিউল করা খুবই কঠিন।"

আরও পড়ুন: IPL 2021: পছন্দের পর্নস্টার Mia Khalifa কে টুইট করে ট্রোলড হলেন Harpreet Brar!

দেখতে গেলে মহামারির ধাক্কায় রীতিমতো কাবু হয়ে পড়ছিল আইপিএল। কলকাতা নাইট রাইডার্স (KKR) এবং চেন্নাই সুপার কিংসের (CSK) পর এবার মঙ্গলবার কোভিড হানা দিয়েছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ (Sunrisers Hyderabad) ও দিল্লি ক্যাপিটালস (Delhi Capitals) শিবিরে। করোনা আক্রান্ত হন বঙ্গজ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান সাহা ও দিল্লির স্পিনার অমিত মিশ্র। এর পরেই বিসিসিআই নড়ে চড়ে বসে এবং চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেল।