অলিম্পিকে নাতির পদক জেতার খুশিতে মারাই গেলেন ঠাকুমা

জয়ের খুশিতে মৃত্যু। নানা রঙের অলিম্পিকে যোগ হল শোক। রিও অলিম্পিকের ৫৬ কেজি বিভাগে পদক জেতেন তাইল্যান্ডের ভারত্তোলক সিনফেট ক্রুআইথং। নিজের শহরে বসে অনেকের সঙ্গে প্রোজেক্টরের মাধ্যমে বড় পর্দায় সেই ম্যাচ দেখছিলেন সিনেফেটের ঠাকুমা। নাতি যখন ভার তুলছেন ঠাকুমা চোখ বন্ধ করে প্রার্থনা করছিলেন। তারপরই ঘোষণা পদক জেতা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে নাতির। ব্যস! খুশিতে আর নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি।

Updated By: Aug 8, 2016, 05:31 PM IST
অলিম্পিকে নাতির পদক জেতার খুশিতে মারাই গেলেন ঠাকুমা

ওয়েব ডেস্ক: জয়ের খুশিতে মৃত্যু। নানা রঙের অলিম্পিকে যোগ হল শোক। রিও অলিম্পিকের ৫৬ কেজি বিভাগে পদক জেতেন তাইল্যান্ডের ভারত্তোলক সিনফেট ক্রুআইথং। নিজের শহরে বসে অনেকের সঙ্গে প্রোজেক্টরের মাধ্যমে বড় পর্দায় সেই ম্যাচ দেখছিলেন সিনেফেটের ঠাকুমা। নাতি যখন ভার তুলছেন ঠাকুমা চোখ বন্ধ করে প্রার্থনা করছিলেন। তারপরই ঘোষণা পদক জেতা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে নাতির। ব্যস! খুশিতে আর নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি।

আরও পড়ুন- অলিম্পিকে মৃত্যু! একবার উল্টে দেখুন ইতিহাসের পাতা

আগে অসুস্থ ছিলেন, অশীতপর ঠাকুমা এরপর জ্ঞান হারান। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই পদকজয়ীর ঠাকুমার মৃত্যু হয়। হার্ট অ্যাটাকের ফলেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে অনুমান। অলিম্পিক শুরুর আগেই সিনফেট ঠা্কুমা বলেছিলেন, ''দেখবেন ও দেশের জন্য ঠিক পদক জিতে আনবে। আর সেদিন আমি সবচেয়ে খুশি হব।''  সিনফেট ব্রোঞ্জ জেতার পর এ খবর পাননি।

দেখুন-দীপার ইতিহাস