ইতিহাস গড়ে 'দেশহীন' অ্যাথলিটের সোনা জয়

অলিম্পিকের নিয়ম অনুয়ায়ী ওর কোনও দেশ নেই। সোনা জয়ের পরেও ওঁর দেশের জাতীয় সঙ্গীত বাজেনি। কারণ আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি) ওর দেশ কুয়েতকে সাসপেন্ড করেছে। তাই আইওসি-র পতাকা নিয়েই ও খেলতে নেমেছিল শ্যুটিংয়ের ডবল ট্র্যাপ বিভাগে। আর জিতে নিলেন সোনা। তাঁর নাম ফেয়াদ আলদিহানি। অলিম্পিকের ইতিহাসে ফেয়াদই হলেন প্রথম আইওসি-র পতাকা নিয়ে কোনও অ্যাথলিট সোনা জিতলেন।

Updated By: Aug 11, 2016, 06:45 PM IST
ইতিহাস গড়ে 'দেশহীন' অ্যাথলিটের সোনা জয়

ওয়েব ডেস্ক: অলিম্পিকের নিয়ম অনুয়ায়ী ওর কোনও দেশ নেই। সোনা জয়ের পরেও ওঁর দেশের জাতীয় সঙ্গীত বাজেনি। কারণ আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি) ওর দেশ কুয়েতকে সাসপেন্ড করেছে। তাই আইওসি-র পতাকা নিয়েই ও খেলতে নেমেছিল শ্যুটিংয়ের ডবল ট্র্যাপ বিভাগে। আর জিতে নিলেন সোনা। তাঁর নাম ফেহাইদ-আল-দীহানি। অলিম্পিকের ইতিহাসে ফেয়াদই হলেন প্রথম আইওসি-র পতাকা নিয়ে কোনও অ্যাথলিট সোনা জিতলেন।

 সোনা জয়ের পর তাঁকে আইওসির পতাকা বহন করতে বলা হয়েছিল। কুয়েতের পতাকা ছাড়া তিনি আরও কোনও পতাকা বহন করবেন না বলে সে প্রস্তাব প্রত্যাখান করেন দীহানি।

আরও পড়ুন-রিও অলিম্পিকে বাংলাদেশের একমাত্র ক্রীড়াবিদ

সোনা জিতেও কোথাও জানো একটা খেদ রয়ে গেল ফেহাইদের। বললেন, ''সোনা জিতলাম অথচ পোডিয়ামে উঠে দেশের জাতীয় সঙ্গীত শুনতে পেলাম না এটা ভাল লাগল না। খারাপ লাগা থেকে কান্নাও এসে যাচ্ছিল।'' কুয়েতের প্রথম ক্রীড়াবিদ হিসেবে এই ফেহাইদ-আল-দীহানি দেশের ইতিহাসে অলিম্পিকে প্রথম পদকজয়ী হয়েছিলেন। ২০০০ সিডনি অলিম্পিকে ফেয়াদ জিতেছিলেন ব্রোঞ্জ পদক। ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকেও জিতেছিলেন পদক। এবার কুয়েতের প্রথম ক্রীড়াবিদ হিসেবে সোনা জেতার ইতিহাস সরকারীভাবে গড়া হল না। কারণ তাঁর দেশ সাসপেন্ড। গত বছর দেশের অলিম্পিক সংস্থায় কুয়েতে সরকারের সরাসরি হস্তক্ষেপের জন্য সাসপেন্ড করে আইওসি।