ছলনা করে সেদিন বাটলারকে আউট করেছিলেন অশ্বিন, ঘটনার ব্যাখ্যা দিল এমসিসি

ক্রিকেটের নিয়ম মেনে আউট করেছেন অশ্বিন। সেটা অবশ্য মেনে নিচ্ছে এমসিসি।

Updated By: Mar 28, 2019, 01:27 PM IST
ছলনা করে সেদিন বাটলারকে আউট করেছিলেন অশ্বিন, ঘটনার ব্যাখ্যা দিল এমসিসি

নিজস্ব প্রতিবেদন- ইডেন তাঁর বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছিল। কলকাতায় খেলতে অস্বস্তিতে পড়েছিলেন আর অশ্বিন। নো মার্সি অশ্বিন। পোস্টারে এমনটা লিখেই অশ্বিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন এক ক্রিকেট সমর্থক। তার আগে পাঞ্জাব বনাম রাজস্থান ম্যাচের পরও অনেকেই অভিযো তুলেছিলেন, অশ্বিনের এমন কাজ ক্রিকেটের স্পিরিট নষ্ট করেছে। তবে অশ্বিন কোনওভাবেই নিজেকে দোষী বলে মানতে নারাজ। তাঁর পাল্টা যুক্তি, তিনি নিয়মের মধ্যে থেকেই বাটলারকে আউট করেছেন। তবে তাঁর এই যুক্তি ক্রিকেটপ্রেমীরা মানতে নারাজ।

আরও পড়ুন-  IPL 2019: মাঠে মাহি, গ্যালারিতে গলা ফাটাল মেয়ে জিভা! দেখুন ভিডিয়ো

এবার অশ্বিনের মাঁকড়ীয় আউটের কড়া সমালোচনা করল এমসিসি। তারা জানাল, অশ্বিন ক্রিকেটের স্পিরিট নষ্ট করেছেন। এমসিসির ম্যানেজার ফ্রেসার স্টিওয়ার্ট বলেছেন, ''অশ্বিন যেটা করেছে তা ক্রিকেটের স্পিরিট নষ্ট করেছে। আমরা একাধিকবার সেদিনের ঘটনা খতিয়ে দেখেছি। অশ্বিন বলটা ছাড়ার ভান করে অনেকক্ষণ দাঁড়িয়েছিল। তার পর ও উইকেট ভাঙে। অশ্বিনের বোলিং করার ভান দেখে বাটলার ভেবেছিল, ও বলটা রিলিজ করে দেবে। তাই বাটলার শেষ মুহূর্তে স্টাম্প ছেড়ে অনেকটা বেরিয়ে এসেছিল। সেই সুযোগটাই নিয়েছে অশ্বিন। কারণ, বাটলার ভেবেছিল যে অশ্বিন ডেলিভারি করবে। এটা কিন্তু একজনকে বোকা বানিয়ে আউট করার মতে ব্যাপার। এ ধরণের ঘটনা ক্রিকেটে ফেয়ার প্লে- পলিসির বিরোধী। অশ্বিনের এই কাজটাকে সমর্থন জোগানো সম্ভব নয়।''

আরও পড়ুন-  আম্রপালির বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ মহেন্দ্র সিং ধোনি!

ক্রিকেটের নিয়ম মেনে আউট করেছেন অশ্বিন। সেটা অবশ্য মেনে নিচ্ছে এমসিসি। কিন্তু অনেক সময় নিয়মের মধ্যে থেকেও কিছু কিছু কাজ করা যায় না। তাতে ক্রিকেটের স্পিরিট নষ্ট হয়। এদিকে, এমসিসির তরফে এটাও জানানো হয়েছে যে, বোলার ডেলিভারি হাত থেকে ছাড়ার আগে নন-স্ট্রাইকারের ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়াটাও স্পিরিট অফ দ্য গেম নষ্ট করে। স্টিওয়ার্ট বলছিলেন, ''অশ্বিন অনেকক্ষণ অপেক্ষা করেছিল বল হাতে। সেই সময়টার মধ্যে বাটলারের ক্রিজে ফেরত আসার চেষ্টা করা উচিত ছিল। কিন্তু ও সেটা করেনি।''