Rahul Dravid: দ্রাবিড়ীয় যুগের দুরন্ত শুরু! তবে 'মাথাব্যথা'র কথা হেড কোচের মুখে!

সিরিজ জিতে দ্রাবিড়ের মুখে তারুণ্যের জয়গান। 

Updated By: Dec 6, 2021, 12:40 PM IST
Rahul Dravid: দ্রাবিড়ীয় যুগের দুরন্ত শুরু! তবে 'মাথাব্যথা'র কথা হেড কোচের মুখে!
রাহুল দ্রাবিড়

নিজস্ব প্রতিবেদন: রবি শাস্ত্রীর (Ravi Shastri) পর ভারতীয় দলে রাহুল দ্রাবিড় (Rahul Dravid) যুগের শুভারম্ভ হল। ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পূর্ণ দায়িত্ব প্রাপ্ত কোচ হিসাবে পথচলা শুরু করলেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার। 'দ্য ওয়াল' এর শিষ্যরা নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজ ৩-০ ছিনিয়ে নেওয়ার পর, দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজও ১-০ জিতল। সিরিজ জিতে দ্রাবিড়ের মুখে তারুণ্যের জয়গান। 

বিরাট কোহলিদের হেড কোচ জানিয়ে দিলেন যে, নতুন মুখেরা যেভাবে ভারতীয় দলে উঠে এসেছে, তাতে করে দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে নির্বাচকদের রীতিমতো "মাথাব্যথা" হয়েছে। আর এমনটাই কাঙ্খিত বলছেন দ্রাবিড়। ময়াঙ্ক আগরওয়াল, শুভমান গিল, শ্রেয়স আইয়ার এবং অক্ষর প্যাটেলরা জ্বলে উঠেছেন এই সিরিজে। দ্রাবিড় বলছেন, "দেখে ভাল লাগছে যে, ছেলেরা সুযোগের সদ্ব্যবহার করেছে। বেশ কিছু সিনিয়র প্লেয়ারকে আমরা পাইনি। তাদের জায়গায় যারা খেলেছে, তাদের অবশ্যই কৃতিত্ব। জয়ন্ত যাদবের গতকালটা ভাল যায়নি। ও কিন্তু আজ শিখে নিয়েছে। ময়াঙ্ক, শ্রেয়স, সিরাজ সেভাবে সুযোগ পায়নি। অক্ষর যেভাবে ব্যাট হাতে অবদান রেখেছে, ওর উন্নতি দেখে ভাললাগছে। আমাদের অনেক বিকল্প বাড়ল। আমরা আরও শক্তিশালী দল হয়ে উঠতে পারছি। চোট-আঘাতের সমস্যা ছিল। খেলোয়াড়দের মানসিক ও শারীরিক ভাবে ম্যানেজ করতে হয়েছে। এটা আমার চ্যালেঞ্জের একটা বড় অংশ ছিল। চ্যালেঞ্জ নির্বাচকদের জন্যও। তরুণ খেলেয়াড়রা যেভাবে পারফর্ম করেছে, দল নির্বাচনের জন্য তারা নির্বাচকদের ভাল মাথাব্যথা দিল। এই টিমে সবাই একে অপরকে ভাল করার জন্য অনুপ্রাণিত করে। ভাল করার যেমন ইচ্ছা রয়েছে সকলের, তেমনই রয়েছে গভীরতা। যত এগিয়ে যাব তত মাথাব্যথা বাড়বে। কঠিন সিদ্ধান্তও নিতে হবে কিছু। খেলোয়াড়দের সঙ্গে কথা বলে সবটা বোঝাতে হবে। আশা করি কোনও সমস্যা হবে না।"

আরও পড়ুন: Virat Kohli: বিশ্বের প্রথম ক্রিকেটার হিসাবে এই অনন্য নজির গড়লেন বিরাট

নিউজিল্যান্ডকে ৬২ রানে অলআউট করে দিয়েছিল ভারত, টেস্টে এটাই যে কোনও দলের ভারতের বিরুদ্ধে সর্বনিম্ন স্কোর। তাও কেন ভারত ফলো-অনের পথ ধরেনি! এই প্রসঙ্গে দ্রাবিড় বলেন, "আমরা জানতাম আমরা প্রচুর সময় পাব। মাথায় ফলো-অনের চিন্তা আসেনি। দলে অনেক তরুণ ব্যাটার আছে। আমি চেয়েছিলাম এই আবহাওয়ায় তারা ব্যাট করুক। ওয়াংখেড়ের লাল মাটিতে টার্ন এবং বাউন্স রয়েছে। ভবিষ্যতে এরকম উইকেটে আমাদের চতুর্থ বা পঞ্চম দিন খেলতে হতে পারে। এই পরিস্থিতিতে ছেলেদের পরীক্ষাও হয়ে গেল। গতকাল শর্ট পিচ বল করে টিম সাউদি ও কাইল জেমিসন সমস্যায় ফেলেছিল আমাদের। এই পিচে প্রস্তুতি সেরে নেওয়ার ভাল সুযোগ পেয়েছে টিম। ভারতে এরকম পিচ সচারচর পাওয়া যায় না। খেলোয়াড়দের উন্নতিতে দারুণ সাহায্য করেছে।" 

দুই ম্য়াচের টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় তথা শেষ টেস্টের যবনিকা পতন হয়ে গেল মাত্র চার দিনের মধ্যেই! সোমবার সকালে ৪৫ মিনিটে ভারত জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ৫ উইকেট তুলে নিউজিল্যান্ডকে ১৬৭ রানে গুটিয়ে দিল। বিরাট কোহলি অ্যান্ড কোং মুম্বই টেস্ট জিতে নেয় ৩৭২ রানে। এই নিয়ে ঘরের মাঠে টানা ১৪তম সিরিজ জয়ের সঙ্গেই টিম ইন্ডিয়া তাদের টেস্ট ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জয়ের (রানের মার্জিনে) নজির গড়ল। এর সঙ্গেই নিউজিল্য়ান্ডকে টপকে ফের একবার বিশ্বের এক নম্বর টেস্ট দল হিসাবে উঠে এল।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)