এল ক্লাসিকোয় হার রিয়াল মাদ্রিদের

মরসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোয় হার রিয়াল মাদ্রিদের।ঘরের মাঠে বার্সিলোনার কাছে তিন-এক গোলে হারল রিয়াল। ম্যাচের মাত্র একমিনিটে বেনজিমার গোলে এগিয়ে গেলেও,তা ধরে রাখতে চরম ব্যর্থ মোরিনহোর ছেলেরা। বার্সিলোনার হয়ে তিনটি গোল করেন অ্যালেক্সিস,জ্যাভি ও সেস ফ্যাব্রেগাস। মরসুমের প্রথম এল ক্ল্যাসিকোয় শেষ হাসি হাসলেন পেপ গুয়ার্দিওলা।মাদ্রিদে অ্যাওয়ে ম্যাচ।

Updated By: Dec 11, 2011, 06:40 PM IST

মরসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোয় হার রিয়াল মাদ্রিদের।ঘরের মাঠে বার্সিলোনার কাছে তিন-এক গোলে হারল রিয়াল। ম্যাচের মাত্র একমিনিটে বেনজিমার গোলে এগিয়ে গেলেও,তা ধরে রাখতে চরম ব্যর্থ মোরিনহোর ছেলেরা। বার্সিলোনার হয়ে তিনটি গোল করেন অ্যালেক্সিস,জ্যাভি ও সেস ফ্যাব্রেগাস। মরসুমের প্রথম এল ক্ল্যাসিকোয় শেষ হাসি হাসলেন পেপ গুয়ার্দিওলা।মাদ্রিদে অ্যাওয়ে ম্যাচ। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে দুরন্ত ছন্দে রোনাল্ডো-ডি মারিয়া-জ্যাভি অ্যালোন্সোরা। আর ম্যাচ শুরুর এক মিনিটের মধ্যে ফরাসি বেনজিমার গোলে মোরিনহোর মুখে চওড়া হাসি।শুরু থেকেই মেসি-পিকেরা ছন্দ খোঁজার চেষ্টা করছিলেন বিপক্ষের ডেরায়। ছন্দ পেতে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি। ম্যাচের পঁচিশ মিনিট থেকেই শুরু হয়ে গেল মেসি ম্যাজিকের জাদুকরী সম্মোহণ। যার ফল এল মাত্র চার মিনিট পরই। মেসিকে আটকাতে হিমশিম খাওয়া রামোস-পেপেদের টপকে ম্যাজিশিয়ানের চোরা ফলোথ্রু অ্যালেক্সিসের পায়ে জমা হতেই গোল। দ্বিতীয়ার্ধ জুড়ে শুধুই বার্সার বেগুনি-নীল রঙের দাপট।মাঝে কর্নার থেকে রোনাল্ডোর হেডে গোল করার প্রচেষ্টা ব্যর্থ হওয়া ছাড়া,তেমন কিছু ঘটাতে পারেনি মোরিনহোর দল। তিপ্পান্ন মিনিটে জ্যাভির দূরপাল্লার শট রিয়াল ডিফেন্ডার মার্সেলোর পায়ে লেগে দিক বদলে ঢুকে যায় রিয়াল মাদ্রিদের গোলে। অসহায় ক্যাসিয়াসের দর্শক হওয়া ছাড়া কোনও উপায়ও ছিলনা। এরপর মেসি-জ্যাভি-ফাব্রেগাসদের বিখ্যাত উইংপ্লেই নাড়িয়ে দিচ্ছিল রিয়ালের রক্ষণকে। সাতষট্টি মিনিট মেসির ছোট্ট পাস রাইট উইঙ্গার ড্যানি অ্যালভেজের পা ঘুরে ফ্যাব্রেগাসের মাথায় পড়তেই গোল। তিন-এক ফলে পিছিয়ে পড়া মোরিনহোর তূণে আর কোনও শক্তিশেল ছিলনা  গুয়ার্দিওলাকে কুপোকাত করতে। আর বিপক্ষের ডেরায় এসে কলার উঁচিয়ে প্রথম এল ক্লাসিকো জয়ের উচ্ছাস ন্যু ক্যাম্পে নিয়ে গেলেন মেসি-পুয়োলরা।