close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

বল-বিকৃতি কাণ্ডের পর প্রথমবার একসঙ্গে মাঠে নামলেন ওয়ার্নার-স্মিথ

এদিন স্মিথের সাদারল্যান্ড জিতল তিন উইকেটে।

Suman Majumder | Updated: Nov 11, 2018, 12:23 PM IST
বল-বিকৃতি কাণ্ডের পর প্রথমবার একসঙ্গে মাঠে নামলেন ওয়ার্নার-স্মিথ

নিজস্ব প্রতিনিধি : মাথায় এখনও নির্বাসনের খাঁড়া ঝুলছে। যদিও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তাঁদের শাস্তি নিয়ে পুনর্বিবেচনায় বসেছে। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশন-এর আবেদনের ভিত্তিতে শাস্তি তুলে নেওয়ার ব্যাপারে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ভাবনা-চিন্তা করছে বলে খবর। কিন্তু এরই মধ্যে স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার মাঠে নামলেন। বল-বিকৃতি কাণ্ডের পর এই প্রথমবার। ঘরোয়া ক্রিকেটে একে অপরের বিরুদ্ধে খেললেন তাঁরা।

আরও পড়ুন-  স্ত্রী অঞ্জলির জন্মদিন পালনে জঙ্গলে হাজির হলেন সচিন তেণ্ডুলকর

রান্ডউইক পিটারসামের হয়ে নেমছিলেন ওয়ার্নার। স্মিথ খেললেন সাদারল্যান্ডের হয়ে। তবে এদিন স্মিথের সাদারল্যান্ডের বিরুদ্ধে আহামরি পারফরম্যান্স দিতে পারলেন না ওয়ার্নার। মাত্র ১৩ রানের মাথায় ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে ধরা পড়লেন। ওয়ার্নারের উইকেট নিলেন আবার স্টিভ ওয়ার ছেলে অস্টিন ওয়া। অন্যদিকে, স্মিথ কিন্তু ৪৮ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলে গেলেন। তবে এদিনে স্মিথ-ওয়ার্নার, দুই সুপারস্টারকে ঢেকে দিলেন আরেক অজি তারকা। শেন ওয়াটসন। ৪১ বলে ৬৩ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলে তিনি ছিলেন আলোচনার কেন্দ্রে। এদিন স্মিথের সাদারল্যান্ড জিতল তিন উইকেটে।

আরও পড়ুন-  আজ বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান মহারণ কখন, কোথায় দেখবেন? জেনে নিন

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে খেলার সময় বল-বিকৃতি কাণ্ডে জড়িয়েছিলেন স্মিথ-ওয়ার্নার। আন্তর্জাতিক ও স্টেস ক্রিকেট থেকে এই দুজনকে নির্বাসনে পাঠিয়েছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু ক্লাব ক্রিকেট খেলার অনুমতি ছিল। যদিও এদিন ক্লাব স্তরের ম্যাচে আরও একটা ব্যাপার দেখার ছিল। স্মিথ-ওয়ার্নারের এই মাঠে ফেরা দর্শকরা কেমনভাবে নেয়! দেখা গেল, বল-বিকৃতি কাণ্ড দর্শকদের উপর আহামরি কোনও প্রভাব ফেলেনি বলেই মনে হতে পারে। স্মিথ ও ওয়ার্নারের জন্য দর্শকরা আসন ছেড়ে উঠে দাঁড়িয় হাততালি দিলেন। তার পর সেলফি, অটোগ্রাফ নিতে দুই তারকার আশেপাশে ভিড় উপচে পড়ল। বল-বিকৃতি কাণ্ডের পর আর একসঙ্গে দেখা যায়নি স্মিথ-ওয়ার্নারকে। যদিও সিডনি ডেইলি টেলিগ্রাফ-এর খবর অনুযায়ী, স্মিথ-ওয়ার্নার নাকি প্রায় প্রতি সপ্তাহেই একসঙ্গে প্র্যাকটিস করেন। তা ছাড়া নিয়মিত পরস্পরের সঙ্গে যোগাযোগও রাখেন।