close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে মঙ্গলবার দিল্লিতে বৈঠক আই লিগ ক্লাব জোটের! আলোচনায় সমাধানের পক্ষে সুব্রত দত্ত

ইতিমধ্যেই সমস্যা সমাধানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছে আই লিগ ক্লাবেরা।

Sukhendu Sarkar | Updated: Jul 15, 2019, 10:55 PM IST
পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে মঙ্গলবার দিল্লিতে বৈঠক আই লিগ ক্লাব জোটের! আলোচনায় সমাধানের পক্ষে সুব্রত দত্ত

নিজস্ব প্রতিবেদন : আইএসএল-আই লিগ বিতর্কে তোলপাড় ভারতীয় ফুটবল। পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করতে মঙ্গলবার দিল্লিতে বৈঠকে বসছে আই লিগের ক্লাব জোট। বিকেলে বৈঠকের পর সন্ধেবেলায় আইনজীবীদের সঙ্গেও বৈঠক করবেন আইলিগ ক্লাবের কর্তারা। ফেডারেশনের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার রাস্তাও খোলা রেখেছে আই লিগের ক্লাবজোট। সেই ব্যাপারেই আইনজীবীদের সঙ্গে পরামর্শ করবেন দেবাশিস দত্ত-অজিত আইজ্যাকরা।

তবে আদালতে না গিয়ে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের পক্ষেই এআইএফএফ-এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সুব্রত দত্ত। তিনি বলেন, " ভারতীয় ফুটবলের উন্নয়নের দায়িত্ব শুধু অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের নয়। দায়িত্ব যেমন প্রতিটি রাজ্য সংস্থার আছে, তেমনই দায়িত্ব প্রতিটা ক্লাবেরও। আমি মনে করি ক্লাবদের এমন কিছু করা উচিত্ নয় যেটা ফুটবলের প্রগতির পরিপন্থী। কোর্টে গেলে যে পক্ষ ঠিক সে পক্ষ সুবিচার নিশ্চয়ই পাবে।কিন্তু কোর্টে যাওয়ার আগে দশবার ভাবা উচিত্! কারণ তার জন্য যদি ভারতবর্ষের ফুটবল ক্ষতিগ্রস্থ হয়, সেটা কারোর জন্যই ভালো নয়। কারণ, AFC বা FIFA কেউই চায় না, AIFF ও কখনই চায় না যে ফুটবলটা কোর্টে যাক। আমি মনে করি, আলোচনার মাধ্যমেই একটা সমাধান নিশ্চয়ই পাওয়া যেতে পারে। আলোচনার রাস্তা কখনই বন্ধ হয়নি। তাতে হয়তো যাঁরা জড়িত তাদের কিছু কিছু আত্মত্যাগ করতে হবে। সেটা করা উচিত্! কারণ সবাই চায় ভারতীয় ফুটবলের উন্নতি হোক। সেখানে কোর্টে গিয়ে যদি লিগগুলো বন্ধ হয়ে যায়, সেটা কারোর জন্যই ভালো হবে না। বিশেষ করে যারা খেলোয়াড় তাদের জন্য ভালো হবে না।"  

আরও পড়ুন - ZEE বাংলা ফুটবল লিগ: যুগ্মবিজয়ী ঘোষণা করা হল ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগানকে

ইতিমধ্যেই সমস্যা সমাধানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছে আই লিগ ক্লাবেরা। কলকাতায় বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়র সঙ্গেও বৈঠকও করেছেন ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগানের কর্তারা। ক্লাবদের এই তত্পরতায় কিছুটা হলেও চাপে ফেডারেশন। শোনা যাচ্ছে গত এক সপ্তাহে নাকি দুবার কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরণ রিজিজুর সঙ্গে দেখা করেছেন ফেডারেশন সভাপতি প্রফুল্ল প্যাটেল।