নারিনদের স্পিন ছোবলে টি২০ বিশ্বকাপে বিদায় পাকিস্তান, সেমিতে গেইলরা

ওয়েস্ট ইন্ডিজ-১৬৬/৬। পাকিস্তান-৮২

Updated By: Apr 1, 2014, 10:10 PM IST

ওয়েস্ট ইন্ডিজ-১৬৬/৬। পাকিস্তান-৮২

প্রথম সেমিফাইনাল (বৃহস্পতিবার)-শ্রীলঙ্কা বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
দ্বিতীয় সেমিফাইনাল-(শুক্রবার)-ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা

টি ২০ বিশ্বকাপে ক্যারিবিয়ান স্পিনারদের ছোবলে পাকিস্তান ব্যাটসম্যানরা প্রাণ হারাল। আর তাতেই টি ২০ বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিল মহম্মদ হাফিজের দল। মঙ্গলবার মীরপুরে মরণবাঁচন লড়াইয়ে পাকিস্তানকে মাত্র ৮২ রানে অলআউট করে সেমিফাইনালে উঠে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দুই ক্যারিবিয়ান সুনীল নারিন, স্যামুয়েল বাদ্রে নাকানিচোবানি খাওয়ালেন আকমল, হাফিজ, মালিকদের। দুই পাক ওপেনার আউট হন ০ রানে। সর্বোচ্চ রান মহম্মদ হাফিজ (১৮)। ১৬৬ রান তাড়া করতে নেমে কখনই ম্যাচে ছিল না পাকিস্তান। যেন মনে হচ্ছিল ক্লাবস্তরের কোন ব্যাটসম্যানরা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেতে নেমেছেন।

ম্যাচের শুরুটা পাকিস্তান করেছিল দারুণ। দলের মাত্র ১০ রানের মধ্যে প্যাভিলিয়নে ফেরত যান গেইল। মাত্র ৮১ রানের মধ্যেই অর্ধেক ইনিংস গুঁটিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের। সবাই যখন ধরেই নিয়েছে ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানরা খুব বেশি রানের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে পারবে না পাকিস্তানকে। তখনই হঠাত্‍ দুরন্ত হয়ে উঠলেনব্রাভো আর অধিনায়ক স্যামি। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে হারা ম্যাচ জিতিয়ে দেওয়া স্যামি আজ যেন সেদিনের ম্যাচের শেষ থেকেই শুরু করেন। মাত্র ২৮ বলে স্যামি করেন ৪২ রান। মারেন ২টি ছক্কা, ৫টি চার। ব্রাভো করেন ৩৭ বলে ৪৬ রান। চোখের নিমেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজ স্কোর চলে যায় ১৬৬ রানে। জবাবে পাকিস্তানের ব্যাটিংটা বিপর্যয় বললেও কম বলা হবে।

বৃহস্পতিবার মীরপুরে প্রথম সেমিফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলবে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। পরদিন ওই একই কেন্দ্রে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা।