আরামবাগে থার্মাল স্ক্রিনিং-এ পাস করলেই মিলছে বাজারে ঢোকার অনুমতি

পুরসভার তরফে জানানো হচ্ছে সকালে বাজারে থার্মাল থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের পাশাপাশি বিকেলের দিকে পাড়ায় পাড়ায় থার্মাল স্ক্রিনিং করা হবে

Updated By: Apr 20, 2020, 10:51 PM IST
আরামবাগে থার্মাল স্ক্রিনিং-এ পাস করলেই মিলছে বাজারে ঢোকার অনুমতি

নিজস্ব প্রতিবেদন: সবজি বাজারে ঢুকতে হলে থার্মাল স্ক্রিনিং পাশ করতে হবে। আরামবাগে আজ থেকে  শুরু হয়েছে এই নতুন ব্যবস্থা। আরামবাগের পুরাতন বাজার হল শহরের সব চেয়ে বড় সবজি বাজার। যেটা আগে ছিল সদরঘাট এলাকায়। গাদাগাদি ভিড় ঠেকাতে আরামবাগ বয়েজ স্কুল মাঠে বাজার তুলে আনা হয়েছে। আর সেখানেই প্রধান ফটকে থার্মাল স্ক্রিনিং করে তবেই বাজারে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে। পুরসভার তরফে জানানো হচ্ছে সকালে বাজারে থার্মাল থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের পাশাপাশি বিকেলের দিকে পাড়ায় পাড়ায় থার্মাল স্ক্রিনিং করা হবে।

আরও পড়ুন-Live: রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত ২৪৫, মৃত ১২ | দেশে আক্রান্ত ১৭২৬৫, মৃত ৫৪৩

এদিকে, করোনা রুখতে বীরভূমে কঠোর প্রশাসন। থার্মাল গান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে তবেই মিলছে সীমান্ত পেরিয়ে বীরভূমে ঢোকার অনুমতি। ঝাড়খণ্ড-সহ মুর্শীদাবাদ ও দুই বর্ধমান থেকে বীরভূমে ঢোকার প্রতিটি রাস্তায় শুরু হয়েছে নাকা চেকিং। জেলায় আসা সমস্ত গাড়ির নম্বর,  চালকের নাম নোট করে রাখা হচ্ছে।  এদিকে এরই মধ্যে নানুরের পাটনীল গ্রামের পনের জনকে পাঠানো হয়েছে কোয়ারেন্টিনে।

আরও পড়ুন-‘দার্জিলিং-কালিম্পংয়ের অবস্থা এখন ভালো, তবু কেন কেন্দ্রীয় টিম গেছে জানি না’: মুখ্যসচিব

অন্যদিকে, ভদ্রেশ্বর, বৈদ্যবাটির পর এবার চাঁপদানি পুর এলাকায় ড্রোনের সাহার্যে নজরদারি শুরু করল পুলিস। ড্রোন নজরদারির পাশাপাশি শুরু হয়েছে নাকা চেকিং। জনবহুল এলাকার পাশাপাশি মেন রোড,মিল এলাকায় চলছে জোরদার নজরদারি।