পাঁচিল টপকে ঢোকে ১১ জনের ডাকাতদল, দুঃসাহসিক ডাকাতি অবসরপ্রাপ্ত পুলিসকর্মীর বাড়িতে

দুষ্কৃতীরা প্রথমে রাজীব রায়ের ছেলের উপর চড়াও হয়।

Updated By: Jan 13, 2019, 12:12 PM IST
পাঁচিল টপকে ঢোকে ১১ জনের ডাকাতদল, দুঃসাহসিক ডাকাতি অবসরপ্রাপ্ত পুলিসকর্মীর বাড়িতে

নিজস্ব প্রতিবেদন : শনিবার রাতে ভয়াবহ ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনা টাউন থানার পানিছড়া গ্রামে। অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মী রাজীব রায়ের বাড়িতে শনিবার ১১ জনের একটি ডাকাতদল হানা দেয়। পরিবারের সদস্যদের মারধর করে কপালে বন্ধুক ঠেকিয়ে লুঠ করে নগদ ১৭ হাজার ও বাড়িতে থাকা কয়েক ভরি সোনার গয়না।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, শনিবার রাতে হঠাত্ই তাঁরা গুলির শব্দ পায়। তারপর চিৎকার-চেঁচামেচি। তখনই গ্রামবাসীরা জানতে পারে যে  রাজীব রায়ের বাড়িতে ডাকাত পড়েছে। জানা গিয়েছে, রাত সাড়ে ৮টা নাগাদ হঠাৎ পাঁচিল টপকে বাড়ির মধ্যে ঢুকে পড়ে কয়েকজন দুষ্কৃতী। সেইসময় বাড়ির বাইরে ছিল রাজীবের ১৪ বছরের ছেলে।

আরও পড়ুন, ভয়ঙ্কর ঘটনা কড়েয়ায়, ব্লেড নিয়ে হামলা, ধাওয়া করে গুলি যুবককে

দুষ্কৃতীরা প্রথমে রাজীব রায়ের ছেলের উপর চড়াও হয়। তাকে ধরে মাটিতে ফেলে দেয়। তারপর আতঙ্কিত কিশোরের মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে অবাধে লুঠপাট চালায়। আলামারি ভেঙে লুঠ করা হয় টাকা, গয়না। এমনকি, রাজীব রায়ের স্ত্রীর কানের সোনার দুলও ছিনিয়ে নেয় ডাকাতদল।

আরও পড়ুন, নারকীয় ঘটনা! মা ও সন্তানদের উপর অ্যাসিড হামলা বাবার

রাজীব রায়ের স্ত্রীর চিত্কার শুনে এরপরই ছুটে আসে প্রতিবেশীরা। লোকজন জড়ো হতেই সুযোগ বুঝে চম্পট দেয় ডাকাতদল। স্থানীয়দের অভিযোগ, দিনদিন ঘাটাল মহকুমার বিভিন্ন এলাকায় চুরি ও ডাকাতির ঘটনা বেড়ে চলেছে। পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার কারণেই এধরনের ঘটনা বার বার ঘটছে বলে দাবি তাঁদের।