Panskura Police Station Fire: পাঁশকুড়া থানার গোডাউনে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড, মৃত্যু সিভিক ভল্টান্টিয়ারের

নিহত সিভিক ভলান্টিয়ারের পরিবারেরও দাবি বিস্ফোরণের ফলে তৈরি অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যু হয়েছে। তবে মহকুমা পুলিস আধিকারিক জানাচ্ছেন, গোডাউনে বাজি বা ওই ধরনের কোনও বিস্ফোরক রাখা ছিল না। তবে একটি অগ্নিকাণ্ড হয়েছে। তবে তা কী কারণে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে

Updated By: Dec 1, 2022, 07:27 PM IST
Panskura Police Station Fire: পাঁশকুড়া থানার গোডাউনে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড, মৃত্যু সিভিক ভল্টান্টিয়ারের

কিরণ মান্না: কিছুদিন আগেই বারুইপুর থানার গোডাউনে আগুন লেগে যায়। সেই আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায় বেশ কয়েকটি গাড়ি। এবার পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়া থানা। বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে ছাই থানার গোডাউন। ওই অগ্নিকাণ্ডে এক সিভিক ভলান্টিয়ারের মত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। সন্দেহ, গোডাউনে রাখা বাজেয়াপ্ত বাজিতে আগুন ধরেই এমন বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড। আগুনের দাপট এতটাই তীব্র ছিল যে প্রথমদিকে ধারেকাছে ঘেঁসেতে পারেনি সেখানে থাকা লোকজন।

আরও পড়ুন- মেধাতালিকা প্রকাশ করে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে নিয়োগ চাই, ধর্নায় আপার প্রাইমারির চাকরিপ্রার্থীরা

বৃহস্পতিবার বিকেলে পাঁশকুড়া থানার পাশে একটি গোডাউনে আগুন লেগে যায়। স্থানীয়দের দাবি বিস্ফোরণ হয়েছে। নিহত সিভিক ভলান্টিয়ারের পরিবারেরও দাবি বিস্ফোরণের ফলে তৈরি অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যু হয়েছে। তবে মহকুমা পুলিস আধিকারিক জানাচ্ছেন, গোডাউনে বাজি বা ওই ধরনের কোনও বিস্ফোরক রাখা ছিল না। তবে একটি অগ্নিকাণ্ড হয়েছে। তবে তা কী কারণে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এদিকে, প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি আগুন লাগার পরে তুবড়ি বা বাজি ফাটার মতো শব্দ হচ্ছিল। তা থেকেই অনুমান করা হচ্ছে শব্দবাজি মজুত থাকতে পারে। অন্যদিকে, ওই আগুন নেভাতে গিয়ে দমকলকেও প্রবল বেগ পেতে হয়েছে। তবে পুলিসের দাবি কোনও বাজি ছিল না। জানা যাচ্ছে একজন সিভিক ভলান্টিয়ারের মৃত্যুর পাশাপাশি ২ জন আহত হয়েছেন।

জেলা পুলিসের এক আধিকারিক সংবাদমাধ্যমে বলেন, কোনও বাজি বিস্ফোরণ হয়নি। পাঁশকুড়া থানার সামনে একটি খোলা জায়গা রয়েছে। সেখানে নোংরা ফেলা হয়। আজ বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ সেখানকার আবর্জনা স্তূপে আগুন লেগে যায়। কীভাবে ওই আগুন লাগল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘটনাস্থলের পাশেই একজন সিভিক ভলান্টিয়ার ছিলেন। তিনি ছুটে এসে কিছু বাইক সরাতে যান। তা করতে গিয়েই তিনি আহতন হন। হাসপাতালে নিয়ে গেল তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

মৃত সিভিক ভলান্টিয়ারের বাবা বলেন, থানা থেকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। এসে দেখি সব শেষ। কোনও কথা হল না। শোনা যাচ্ছে ওখানে বোমা ফেটেছিল। স্থানীয়দের দাবি, আগুন লাগার পরে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়েছিল। পুলিসকে এখন বলতে হবে ওই আগুন কীভাবে লাগল।  

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)