জেলা হাসপাতাল বা মেডিক্যাল কলেজে ডাক্তার দেখাতে গেলে এবার থেকে লাগবে এই কার্ড

ভিনরাজ্য ও বাংলাদেশের বহু মানুষ পশ্চিমবঙ্গের বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরিষেবার সুবিধা নিচ্ছেন। ফলে ফাঁকা হচ্ছে রাজ্যের কোষাগার। সেই প্রবণতা রুখতে এই সিদ্ধান্ত। 

Updated By: Jan 3, 2019, 06:41 PM IST
জেলা হাসপাতাল বা মেডিক্যাল কলেজে ডাক্তার দেখাতে গেলে এবার থেকে লাগবে এই কার্ড

নিজস্ব প্রতিবেদন: জেলা হাসপাতাল বা মেডিক্যাল কলেদের বহির্বিভাগে (আউটডোর)-এ ডাক্তার দেখাতে গেলে এবার থেকে নিয়ে যেতে হবে ডিজিটাল রেশন কার্ড। বহির্বিভাগে রোগীর নাম নথিভুক্তিকরণের জটিলতা কমাতেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানানো হয়েছে। তবে স্বাস্থ্যভবনের অন্দরমহল থেকে খবর, ভিনরাজ্য ও বাংলাদেশের বহু মানুষ পশ্চিমবঙ্গের বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরিষেবার সুবিধা নিচ্ছেন। ফলে ফাঁকা হচ্ছে রাজ্যের কোষাগার। সেই প্রবণতা রুখতে এই সিদ্ধান্ত। 

গত ৩১ ডিসেম্বর তথ্য প্রযুক্তি কমিশনারের জারি করা ওই সার্কুলারে জানানো হয়েছে, জেলা হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজের আউটডোরে চিকিত্সকের পরামর্শ নিতে এবার থেকে নিয়ে যেতে হবে ডিজিটাল রেশন কার্ড। ওই কার্ডে রয়েছে বারকোড। যার মাধ্যমে মুহূর্তেই রোগীর নাম ঠিকানা জানতে পারবেন হাসপাতালের কর্মীরা। ফলে দ্রুত তৈরি করা যাবে বহির্বিভাগের কার্ড। বর্তমারে রাজ্যের প্রায় ৮ কোটি ৮০ লক্ষ মানুষের এই কার্ড রয়েছে। বহির্বিভাগের কার্ড তৈরি করার সময় কমাতেই এই নির্দেশ বলে জানানো হয়েছে। 

গণতন্ত্রের জ্ঞান মোদীর কাছ থেকে নেব না: মমতা

তবে সূত্রের খবর, তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর গোটা রাজ্যে সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিত্সা পাচ্ছে সাধারণ মানুষ। এরাজ্যে ঢুকে সেই সুবিধা নিয়ে যাচ্ছেন পড়শি ঝাড়খণ্ড, বিহারের মতো পড়শি রাজ্যের বাসিন্দারা। এমনকী বাংলাদেশ থেকেও কিছু মানুষ এসে বিনামূল্যে চিকিত্সা করাচ্ছেন। যার জন্য বাড়তি খরচ বইতে হচ্ছে রাজ্য সরকারকে। বহিরাগত রোগীদের চিহ্নিত করতে তাই খাদ্যসাথী কার্ডকে হাতিয়ার করল সরকার। তবে যাদের কাছে ডিজিটাল রেশন কার্ড নেই, তাদের জন্যও দরজা খোলা রেখেছে কর্তৃপক্ষ। সেক্ষেত্রে নথিভুক্ত করাতে হবে রোগীর ফোন নম্বর।