রাজ্যজুড়ে লকডাউন, ৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়ল সময়সীমা, বিদ্যুতের বিল দেওয়া যাবে অনলাইনেও

শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় বলেন, "করোনা সতর্কতাবিধি মাথায় রেখে লোকসান মাথায় নিয়েও এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করলাম।"

Reported By: শ্রাবন্তী সাহা | Edited By: সুদেষ্ণা পাল | Updated By: Mar 24, 2020, 05:27 PM IST
রাজ্যজুড়ে লকডাউন, ৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়ল সময়সীমা, বিদ্যুতের বিল দেওয়া যাবে অনলাইনেও

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনা মোকাবিলায় ৩১ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করেছেন সরকার। এই পরিস্থিতিতে এবার বিদ্যুতের বিল জমা দেওয়ার শেষ দিনও ৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল বিদ্যুৎ দফতর। এই সপ্তাহেই বিদ্যুতের বিল জমা দেওয়ার  শেষ তারিখ ছিল অনেক জায়গায়। সেই সময়সীমা বাড়িয়েই ৩১ মার্চ পর্যন্ত করা হল। বিল জমা দেওয়া যাবে অনলাইনেও। 

বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় বলেন, "করোনা মোকাবিলায় লকডাউন রাজ্যজুড়ে। এই পরিস্থিতিতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবেই বিল জমা দেওয়ার শেষ তারিখ বাড়ানো হল। কারণ করোনা সতর্কতায় একসঙ্গে অনেক মানুষের লাইন করে দাঁড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এখন বিদ্যুৎ দফতর একটি স্বশাসিত সংস্থা। বিল ঠিক সময়ে জমা না পড়লে লোকসানের মুখে পড়বে সংস্থা। কিন্তু করোনা সতর্কতাবিধি মাথায় রেখে, মানুষের সুস্থতার লক্ষ্যে লোকসান মাথায় নিয়েও এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করলাম।"

প্রসঙ্গত, নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে আজ বিকেল ৫টা থেকে রাজ্যজুড়ে লকডাউনের কথা ঘোষণা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৩১ মার্চ পর্যন্ত বলবত্ থাকবে লকডাউন। করোনার মোকাবিলায় সাধারণ মানুষকে সরকারি নির্দেশিকা মেনে চলার আবেদন করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী আবেদন, আপনাদের সুবিধার জন্য খোলা রয়েছে দোকান। অনেকে লাইন দিয়ে দাঁড়াচ্ছেন। হাত জোড় করে বলছি, ঘেঁষাঘেষি করে দাঁড়াবেন না। দূরত্ব বজায় রাখুন। কাউকে যেন স্পর্শ না করেন।  

এদিন নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী বলেন,''কমপ্লিট সেফটি রেগুলেশন বিধিতে ৩১ মার্চ গোটা রাজ্যে লকডাউন বলবত্ করা হল। কয়েকটি জেলা ও পুরসভাগুলিতে আগে ছিল। আজ সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে বাংলা। শহর থেকে গ্রামে বলবত্ থাকবে। সকলে যাতে ভালো থাকে, তাই এই সিদ্ধান্ত। একটু কষ্ট করতে হবে। ভয় পাবেন না। দুর্যোগে যাতে ভালো থাকা যায়, তাই এটা মানতে হবে।''