close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

ব্যবধান বাড়তেই ইভিএম কারচুপির অভিযোগ তুলে গণনাকেন্দ্র ছাড়লেন তৃণমূল প্রার্থী

"বহু ক্ষেত্রে এক-একটি বুথে মাত্র ২টি বা ৩টি ভোট পড়েছে তাঁদের পক্ষে। যা কার্যত অসম্ভব।"

Updated: May 23, 2019, 03:53 PM IST
ব্যবধান বাড়তেই ইভিএম কারচুপির অভিযোগ তুলে গণনাকেন্দ্র ছাড়লেন তৃণমূল প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদন : ইভিএম কারচুপির অভিযোগ তুললেন  বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী শ্যামল সাঁতরা। বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁর ব্যবধান ৫০ হাজার ছাড়াতেই এই অভিযোগে গণনাকেন্দ্র ছাড়লেন শ্যামল সাঁতরা।

বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের গণনা চলছে বিষ্ণুপুর কে জি ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটে। আজ গণনা শুরুর সময় থেকেই গননাকেন্দ্রে হাজির ছিলেন তৃণমূল প্রার্থী শ্যামল সাঁতরা। সকাল থেকেই নিজের জয়ের ব্যাপারে বেশ আত্মবিশ্বাসী দেখাচ্ছিল তাঁকে। গণনার প্রথম দিকে এগিয়ে ছিলেন শ্যামল সাঁতরা। কিন্তু বেলা যত বেড়েছে ততই খেলা ঘুরেছে।

বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁর প্রাপ্ত ভোটের তুলনায় পিছিয়ে পড়েন শ্যামল সাঁতরা। এরপর বিজেপি প্রার্থীর সঙ্গে ব্যবধান ৫০ হাজার ছুঁতেই বেলা আড়াইটা নাগাদ গণনাকেন্দ্র ছেড়ে বেরিয়ে যান তৃণমূল প্রার্থী। সেইসময়ই সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি ইভিএম কারচুপির অভিযোগ তোলেন।

আরও পড়ুন, হুগলিতে জয়ী 'বহিরাগত' লকেট চট্টোপাধ্যায়-ই, তৃণমূলের রত্না পরাজিত

শ্যামল সাঁতরা দাবি করেন, "নিশ্চিতভাবেই ইভিএম কারচুপির ঘটনা ঘটেছে। বহু ক্ষেত্রে এক-একটি বুথে মাত্র ২টি বা ৩টি ভোট পড়েছে তাঁদের পক্ষে। যা কার্যত অসম্ভব।" বিষয়টি নিয়ে দলের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়ার হবে বলে জানিয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে বিষ্ণুপুর লোকসভা আসন থেকে তৃণমূলের টিকিটে জিতে সাংসদ হয়েছিলেন সৌমিত্র খাঁ। কিন্তু লোকসভা ভোটের মাস কয়েক আগে তিনি বিজেপিতে যোগ দেন। এবার বিজেপির প্রার্থী হয়ে বিষ্ণুপুর কেন্দ্র থেকে লড়েন সৌমিত্র।