তৃণমূল কাউন্সিলরের ডানহাত ছিল, নরেন্দ্রপুরের ‘ডন’ বাবুসোনা খুনে চাঞ্চল্যকর তথ্য

‘দাদা খুব ভালো লোক ছিল’ –প্রকাশ্যেই বললেন এক স্থানীয় বাসিন্দা। তাঁর কথায়, “বাবুসোনাদার এক কথায় আমরা জান লড়িয়ে দিতাম।”

Updated By: Sep 6, 2019, 01:51 PM IST
তৃণমূল কাউন্সিলরের ডানহাত ছিল, নরেন্দ্রপুরের ‘ডন’ বাবুসোনা খুনে চাঞ্চল্যকর তথ্য

নিজস্ব প্রতিবেদন:  রাজপুর সোনারপুর পুরসভার ৩৫ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর গৌর হরি দাসের অনুগামী ছিল বাবু সর্দার। এলাকায় তাকে এক ডাকে সবাই চিনত। তোলাবাজি, সিন্ডিকেটরাজ, কাউকে হুমকি দেওয়া, এলাকা দখলে সিদ্ধহস্ত ছিল বাবুসোনা। বাঁশদ্রোণী ও সোনারপুর থানা-সহ আরও বেশ কয়েকটি থানায় অন্তত ২০টির বেশি মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে রয়েছে একাধিক খুনের মামলাও। নরেন্দ্রপুরে দুষ্কৃতী বাবুসোনা খুনে উঠে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

 

বেশ কয়েকবার জেল খেটেছে সে। কিন্তু জেল থেকে বেরিয়েই আবার নিজের ফর্মেই ফিরে আসত বাবুসোনা। এলাকায় অস্ত্র সরবরাহও করে থাকত সে। বছর দুয়েক আগে  দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় বাবুসোনার ছেলের।

তবে কয়েকজন এলাকাবাসী ও তার অনুগামীদের কথায়, ‘দাদা’র মতো মানুষ পাওয়া নাকি কঠিন। এলাকায় সবার বিপদে ঝাঁপিয়ে পড়ত সে। বহু মানুষকে সাহায্যও করেছে। ‘দাদা খুব ভালো লোক ছিল’ –প্রকাশ্যেই বললেন এক স্থানীয় বাসিন্দা। তাঁর কথায়, “বাবুসোনাদার এক কথায় আমরা জান লড়িয়ে দিতাম।”

প্রকাশ্যে গুলিতে এফোঁড় ওফোঁড় এলাকার ‘দাদা’র গলার নলি, উত্তেজনা নরেন্দ্রপুরে

পুলিস প্রাথমিকভাবে মনে করছে, পুরনো শুত্রুতার জেরেই খুন হতে হয়েছে বাবুসোনাকে। তবে অন্য কোনও রাজনৈতিক কারণ রয়েছে কিনা, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার রাতে নরেন্দ্রপুরে নিজের বাড়ির অদূরেই প্রকাশ্যে নাটকীয়ভাবে খুন হয় বাবুসোনা। দুষ্কৃতীদের ছোড়া গুলিতে এফোঁড় ওফোঁড় হয়ে যায় তার গলার নলি। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই মৃত্যু হয় তার। এলাকায় যার এত দাপট, তার এই পরিণতিতে আতঙ্কিত স্থানীয় বাসিন্দারাও। পুলিস ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

Tags: