রথযাত্রার অনুমতি চেয়ে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে বিজেপি, শুক্রবার শুনানি

 “মানুষের অধিকার গণতান্ত্রিক অধিকার। সেই গণতান্ত্রিক অধিকার নষ্ট করা হচ্ছে।” 

Updated By: Dec 6, 2018, 06:01 PM IST
রথযাত্রার অনুমতি চেয়ে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে  বিজেপি, শুক্রবার শুনানি

নিজস্ব প্রতিবেদন: রথযাত্রার অনুমতি নিয়ে হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ডিভিশন বেঞ্চে বিজেপি। প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চেই মামলা। বিজেপির আর্জি শুনতে রাজি প্রধান বিচারপতি। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় ডিভিশন বেঞ্চে মামলার শুনানি।

এপ্রসঙ্গে বিজেপিরাজ্য নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, “মানুষের অধিকার গণতান্ত্রিক অধিকার। সেই গণতান্ত্রিক অধিকার নষ্ট করা হচ্ছে।” তাঁর অভিযোগ, “সময় নষ্ট করার পরিকল্পনা করছে রাজ্য।  সাম্প্রদায়িকতার দোহাই দিয়ে রথযাত্রা আটকানো হচ্ছে। রাজ্যে কী জরুরি অবস্থা চলছে? আইন শৃঙ্খলা দেখা রাজ্যের দায়িত্ব।” তিনি বলেন, “রথযাত্রা নিয়ে সব জায়গায় চিঠি দিয়েছি, বিভেদের রাজনীতি চলছে। আমরা আইন মেনেই চলব।”

আরও পড়ুন: ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত রথযাত্রা নয়, বিজেপির আর্জি খারিজ হাইকোর্টে

প্রসঙ্গত, আইন শৃঙ্খলার কথা মাথায় রেখে কোচবিহারে বিজেপির রথযাত্রায় অনুমতি দেয়নি আদালত।  পাশাপাশি ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত রাজ্যের কোথাও রথযাত্রা করতে পারবে না বিজেপি। আদালতের নির্দেশ, যে যে জেলায় বিজেপি রথযাত্রা বেরোবে,  প্রত্যেক জেলার পুলিস সুপারকে আলাদাভাবে রিপোর্ট দিতে হবে। ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে হবে। সেই রিপোর্ট দেখেই বিজেপির রথযাত্রার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে আদালত।

বিচারপতি প্রশ্ন করেন, মিছিলে কোন অশান্তি হলে, তার দায় কার ওপর বর্তাবে?  যদিও এর উত্তর বৃহস্পতিবার গোটা সওয়াল জবাব পর্বে অধরাও থেকে যায়। শেষে গোয়েন্দাদের দেওয়া বন্ধ খামের রিপোর্টকেই মান্যতা দেয় আদালত। বিচারপতি  পর্যবেক্ষণ,  একদিনের মাথায় এই মিছিলের অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয়। পুলিসের ক্ষেত্রেও পরিস্থিতি সামলানো কষ্টকর হবে। রথযাত্রা হলে যে কোনও ধরনের অশান্তি ঘটতে পারে, প্রাণহানির আশঙ্কাও থেকে যাচ্ছে। সব দিক বিবেচনা  করে বিজেপির রথযাত্রায় অনুমতি দেয় না আদালত।