তৃণমূল নেতাকে খুনের অভিযোগে পুলিস হেফাজতে একদা অনুব্রত ঘনিষ্ঠ মনিরুলের দাদা

 প্রসঙ্গত, গত ৪জুলাই লাভপুরের ভাটরা গ্রামে খুন হন তৃণমূল নেতা সহদেব বাগদি। বোলপুরের কাশিপুর থেকে লাভপুর থানার পুলিস আনারুলকে গ্রেফতার করে।

Updated By: Aug 21, 2020, 12:23 PM IST
তৃণমূল নেতাকে খুনের অভিযোগে পুলিস হেফাজতে একদা অনুব্রত ঘনিষ্ঠ মনিরুলের দাদা
নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন:  তৃণমূল নেতা খুনের ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার মণিরুল ইসলামের দাদা আনারুল ইসলাম। বোলপুর থেকে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃতকে শুক্রবার বোলপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে, বিচারক তাকে ৯ দিনের পুলিস হেফাজতের নির্দেশ।   

 প্রসঙ্গত, গত ৪জুলাই লাভপুরের ভাটরা গ্রামে খুন হন তৃণমূল নেতা সহদেব বাগদি। বোলপুরের কাশিপুর থেকে লাভপুর থানার পুলিস আনারুলকে গ্রেফতার করে। লাভপুরের ঠিবা গ্রাম পঞ্চায়েতের ভাটরা গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তৃণমূল নেতা সহদেব বাগদি। গত 4 জুলাই গ্রামের বাইরে তাঁর রক্তাক্ত দেহ পাওয়া যায়।

তিনি ঠিবা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন তৃণমূল সদস্য ছিলেন। এই ঘটনায় লাভপুরের বিধায়ক মণিরুল ইসলামের দাদা আনারুল ইসলামের নাম জড়ায়। বৃহস্পতিবার বোলপুরের কাশিপুর থেকে আনারুলকে গ্রেফতার করে লাভপুর থানার পুলিস। ২০১০ সালে বালিরঘাটের দখলদারিকে কেন্দ্র করে একই পরিবারের তিন ভাইকে পিটিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছিল।
 

আরও পড়ুন: অঝোরে বৃষ্টি, দক্ষিণবঙ্গে আর কতদিন থাকবে এই পরিস্থিতি, জানাল আবহাওয়া দফতর

 ওই তিন ভাই সিপিআইএম সমর্থক ছিল বলে পুলিস সূত্রে খবর । সেই ঘটনায় মণিরুল ইসলাম ও তাঁর দাদার যুক্ত থাকার অভিযোগ ওঠে। একদা অনুব্রত মণ্ডলের ঘনিষ্ঠ মণিরুল ইসলাম পরে বিজেপিতে যোগ দেন ।

Tags: