হাত টেনে ধরলেন মা, TMC-তেই থেকে গেলেন Rajib ঘনিষ্ঠ নেতা

'ডোমজুরে সর্বশক্তি দিয়ে লড়াই করে দলের প্রার্থীকে জেতাব'।

Updated By: Feb 17, 2021, 10:39 PM IST
হাত টেনে ধরলেন মা, TMC-তেই থেকে গেলেন Rajib ঘনিষ্ঠ নেতা

নিজস্ব প্রতিবেদন: তৃণমূলের (TMC) ত্যাগের হিড়িকের মাঝে এবার উলটপুরাণ। 'মায়ের চোখের জল' দেখে সিদ্ধান্ত বদল করলেন 'রাজীব ঘনিষ্ট' নেতা। বললেন, 'বিজেপিতে যোগ দিতে চান না। তৃণমূলে থেকেই কাজ করতে চান। ডোমজুরে সর্বশক্তি দিয়ে লড়াই করে দলের প্রার্থীকে জেতাব'। 'যদি ভুল বুঝতে পারেন, তাহলে ভালো', প্রতিক্রিয়া মন্ত্রী অরূপ রায়ের (Arup Roy)।

ডোমজুরের তৃণমূল পরিচালিত সলপ ১ নম্বর পঞ্চায়েত  উপপ্রধান জ্যোর্তিময় ঘোষ। এলাকায় অবশ্য গোপাল ঘোষ নামেই বেশ পরিচিত তিনি। এলাকার প্রাক্তন বিধায়ক রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় (Rajib Banerjee) যখন দলের বিরুদ্ধে 'বেসুরো' মন্তব্য করছিলেন, তখন তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন গোপাল। এরপর দিল্লিতে অমিত শাহের (Amit Shah) বাড়িতে বৈঠকের পর বিজেপিতে (BJP) যোগ দেন রাজীব। সম্প্রতি প্রাক্তন বনমন্ত্রীর সঙ্গে বিজেপি পার্টি অফিসেও দেখা গিয়েছে তৃণমূলের উপপ্রধানকে। স্বাভাবিক কারণেই জোর গুঞ্জন চলছিল রাজনৈতিক মহলে। অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন, গোপাল ঘোষের দলবদল স্রেফ সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু বাস্তবে তা ঘটল না। তৃণমূলেই থেকে গেলেন তিনি।

আরও পড়ুন: "আগামী দিনে ডোমজুরের মানুষ খেলা দেখিয়ে দেবে", হুঙ্কার রাজীবের

কেন এই সিদ্ধান্ত বদল? জানা গিয়েছে, গোপালের দলবদলের সিদ্ধান্তে অশান্তি শুরু হয় পরিবারে। ছেলেকে নানাভাবে বোঝানোর চেষ্টা করেন মা। স্পষ্টতই বলেন, 'মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মমতাময়ী। তৃণমূল ছাড়া অন্য় কোনও দলকে ভোট দিতে আমার হাত কাঁপবে'। এতটাই আঘাত পান যে, কেঁদে ফেলেন ওই বৃদ্ধা। এরপরই মত বদলান তৃণমূলের এই উপপ্রধান। কিছুটা আবেগতাড়িত হয়েই যে বিজেপিতে যোগদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, সেকথা স্বীকার করে নিয়েছেন তিনি।   

আরও পড়ুন: TMC থেকে বহিষ্কৃত 'শুভেন্দু অনুগামী' মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদ সভাধিপতি মোশারফ হোসেন

এই ঘটনায় কী প্রতিক্রিয়া তৃণমূলের? দলের হাওড়া (সদর) জেলার সভাপতি, মন্ত্রী অরূপ রায় বলেন, 'গোপালবাবু যদি ভুল বুঝতে পারেন, তাহলে ভালো'। তাঁর দাবি, 'বিজেপির মতো দলে কেউ আত্মসম্মান নিয়ে কাজ করতে পারে না। যাঁরা গিয়েছে, তাঁদের অনেকেই ফিরে আসবে'।