WB Assembly Election 2021: শীতলকুচির পর বাগদা, এবার পুলিসের 'গুলি'তে আহত ৩

কিন্তু কেন এমন ঘটনা ঘটল?

Updated By: Apr 22, 2021, 07:37 PM IST
WB Assembly Election 2021: শীতলকুচির পর বাগদা, এবার পুলিসের 'গুলি'তে আহত ৩

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতলকুচির পর এবার বাগদা। ভোটবঙ্গে ফের গুলি চলল! গুলিবিদ্ধ ২। কে গুলি চালাল? অভিযোগের তির পুলিসের দিকে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুমুল উত্তেজনা ছড়াল এলাকায়। কেন্দ্রীয় বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

উত্তর ২৪ পরগনার বাগদার ৩৫ নম্বর বুথ। সকাল থেকে ভোটগ্রহণ চলছিল নির্বিঘ্নে। কিন্তু বুথের কাছে খাবারের দোকান থাকার কারণেই কি শেষপর্যন্ত গুলি চলল? জানা গিয়েছে, ভোট চলাকালীন খাবারের দোকানে জটলা করেন গ্রামবাসীরা। সরে যেতে বললে, পুলিসকর্মীদের সঙ্গে বচসা শুরু হয়ে যায় তাঁদের। এরপর পুলিস আচমকাই গুলি চালিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। গুলিবিদ্ধ হন ৩ জন। তাঁদেরকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় একটি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে। চলছে ভোটগ্রহণ। কিন্তু কেন এমন ঘটনা ঘটল? গ্রামবাসীদের জটলা সরাতে গিয়ে পুলিস কেন গুলি চালাল? তার উত্তর মেলেনি। 

 

আরও পড়ুন: WB Assembly Election 2021: কাঁচরাপাড়ায় সদলবদলে ক্যাম্প অফিসে ভাঙচুর, শুভ্রাংশুর বিরুদ্ধে কমিশনে নালিশ TMC-র

প্রসঙ্গত, চতুর্থ দফায় ভোটে গুলি চলেছিল কোচবিহারের শীতলকুচিতে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে প্রাণ হারিয়েছিলেন ৪ জন। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিস্তর জলঘোলা হয়। যদিও গ্রামবাসীর হামলার মুখে আত্মরক্ষা স্বার্থেই গুলি চালানোর সাফাই দেওয়া হয় কেন্দ্রীয় বাহিনীর তরফে। কিন্তু মাত্র ১০ মিটার দূর থেকে কেন গুলি চালানো হল? আত্মরক্ষার তত্ত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে ময়নাতদন্তের রিপোর্টে। এরপর পঞ্চম দফায় ভোটে আবার উত্তর ২৪ পরগনারই দেগঙ্গায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগ ওঠে। তবে সেবার কাউকে লক্ষ্য করে নয়,  শূন্যে গুলি চালানো হয় বলে জানিয়েছিলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। অভিযোগ অবশ্য মানতে চায়নি কমিশন।