close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

নাতবউয়ের সন্তানের আশায় গ্রামের শিশু ও কিশোরীকে বিষ খাইয়ে খুন

 স্থানীয়রা জানায়, সম্প্রতি আলপনার নাতবউয়ের যমজ সদ্যোজাতের মৃত্যু হয়।

Updated: Aug 22, 2019, 08:22 PM IST
নাতবউয়ের সন্তানের আশায় গ্রামের শিশু ও কিশোরীকে বিষ খাইয়ে খুন

নিজস্ব প্রতিবেদন : ফের কুসংস্কারের শিকার এক শিশু ও কিশোরী। নাতবউয়ের সন্তানের আশায় তান্ত্রিকের দেওয়া বিষ খাইয়ে পাড়ার শিশু-কিশোরীকে খুনের অভিযোগ উঠল এক মহিলার বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি উত্তর ২৪ পরগনার স্বরূপনগরের কাবিলপুর গ্রামের। অভিযোগের তীর গ্রামেরই বাসিন্দা আলপনা ঘোষের দিকে। স্থানীয়রা জানায়, সম্প্রতি আলপনার নাতবউয়ের যমজ সদ্যোজাতের মৃত্যু হয়। তারপরেই এক তান্ত্রিকের কাছে যান তিনি। সেই তান্ত্রিক তাঁকে বিধান দেন, তিনজনের প্রাণ নিতে পারলে তবেই তাঁর নাতবউয়ের গর্ভে সন্তান আসবে। এর পরে আলপনাকে একটি ওষুধও দেয় ওই তান্ত্রিক। 

আরও পড়ুন-  বিজেপি করায় ধারালো অস্ত্রের কোপে গৃহবধূর ‘কান কাটল’ তৃণমূল!

এরপরেই সেই বিষ দিয়ে পাড়ার শিশুদের খুন করার পরিকল্পনা করেন ওই মহিলা। এলাকাবাসীর অভিযোগ পাড়ার শিশুদের ডেকে এনে তান্ত্রিকের দেওয়া বিষ খাওয়াতে শুরু করেন তিনি। কিন্তু পাড়ার লোকে তা ঘুণাক্ষরেও টের পায়নি। আলপনার খাওয়ানো ওষুধ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে ৩ বছরের এক শিশু। সপ্তাহ দুয়েক আগে তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর কারণ নিয়ে সেই সময়ে ধোঁয়াশায় ছিল গ্রামবাসী।

এর পরেও থামেনি আলপনা। গ্রামবাসীর অভিযোগ, শনিবার রিঙ্কু ঘোষ নামের এক উচ্চমাধ্যমিক ছাত্রীকে ডাকেন আলপনা। রিঙ্কুকে মোটা হওয়ার ওষুধের নাম করে জোর করে বিষ খাইয়ে দেন তিনি। রিঙ্কুর পরিবারের অভিযোগ, বাড়ি ফিরেই রক্তবমি করতে থাকে সে। সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বৃহস্পতিবার সকালে রিঙ্কুর মৃত্যু হয়। 

রিঙ্কুর মৃত্যুর খবরেই উত্তেজিত হয়ে ওঠে গ্রামবাসী। সকলে মিলে আলপনার বাড়ি চড়াও হয়। আলপনার বাড়িতে ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয় ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী। আলপনার বাড়িতে রাখা গাড়িতেও আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। খবর পেয়ে পুলিস গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অবস্থা বেগতিক বুঝে আগেই পালিয়ে যান অভিযুক্ত আলপনা ঘোষ। পুলিস তাঁর খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে।