close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

আমরা ৬ পয়সাটা নিচ্ছি না, এয়ারটেল, ভোডাফোন নিচ্ছে: জিও

জিও-এর বক্তব্য এর জন্য তাদের কোনও দোষ নেই। ট্রাইয়ের নিয়ম মেনে গ্রাহকদের টাকা কেটে সেটা আসলে এয়ারটেল ও ভোদাফোনকেই দেওয়া হচ্ছে। এই টাকা নিয়ে রিলায়েন্সের কোনও মুনাফা হচ্ছে না। 

Updated: Oct 15, 2019, 04:19 PM IST
আমরা ৬ পয়সাটা নিচ্ছি না, এয়ারটেল, ভোডাফোন নিচ্ছে: জিও

নিজস্ব প্রতিবেদন : সম্পূর্ণ আনলিমিটেড কলের ফিচার উঠে যাওয়ার পর থেকেই চাপান-উতোর তৈরী হয়েছে জিও ও তার প্রতিদ্বন্দীদের মধ্যে। জিও-কে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় এয়ারটেলের খোঁচা ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে। এবার সেই প্রশ্নেরই জবাব দিল রিলায়েন্স জিও। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে তাদের বক্তব্য, "আমরা না, টাকাটা ওরা নিচ্ছে।" জিও-এর বক্তব্য এর জন্য তাদের কোনও দোষ নেই। ট্রাইয়ের নিয়ম মেনে গ্রাহকদের টাকা কেটে সেটা আসলে এয়ারটেল ও ভোদাফোনকেই দেওয়া হচ্ছে। এই টাকা নিয়ে রিলায়েন্সের কোনও মুনাফা হচ্ছে না। 

রিলায়েন্স জিও-এর তরফে বলা হয়, "যখনই কোনও জিও ব্যবহারকারী অন্য কোনও অপারেটরের নম্বরে ফোন করবেন, ৬ পয়সা প্রতি মিনিট করে সেই অন্য অপারেটরকে দেওয়া হবে। ট্রাইয়ের নিয়ম মেনেই এই টাকাটা দেওয়া হচ্ছে।" স্পষ্টতই বিএসএনএলকে ট্রোল করে নীল রঙের উপর লেখা এই মেসেজ। 

সেই সঙ্গে কার্যত ট্রোলিংয়ের যুদ্ধে নেমে পড়েছে সংস্থাগুলি। ভোডাফোনের ব্র্যান্ডের রঙ লাল। আর সেই লাল ব্যাকগ্রাউন্ডের উপরে লিখেই ভোদাফোনকে ট্রোল করল জিও।

শুধু ভোদাফোনকেই নয়, আইডিয়াকেও ট্রোল করল রিলায়েন্স। সরাসরি "হোয়াই দিস আইডিয়া স্যারজি" বলে আঘাত হানল জিও।

এরপর এয়ারটেলকেও সরাসরি ট্রোল করতে ছাড়ল না জিও। 'এয়ার টোল' লিখে এয়ারটেলকে ট্রোল করল জিও। তবে, সেই ট্রোলের যোগ্য জবাব দিতেও ছাড়ল না এয়ারটেল। 

এয়ারটেলও পাল্টা জবাব দিল জিওকে। আনলিমিটেড মানে যে কার্যতই আনলিমিটেড, পোস্ট করে তা জানিয়ে দিল এয়ারটেল। 

 

সব মিলিয়ে জিও-এর নতুন ঘোষণা নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া।