close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

খুব শীঘ্রই ভারতে আসছে Xiaomi-র ‘বিশ্বের দ্রুততম’ স্মার্টফোন

দুর্দান্ত গেমিং-এর অভিজ্ঞতার জন্য থাকছে ৮ জিবি RAM, শক্তিশালী octa-core প্রসেসর এবং Snapdragon 855 SoC চিপসেট। 

Updated: Jun 17, 2019, 01:19 PM IST
খুব শীঘ্রই ভারতে আসছে Xiaomi-র ‘বিশ্বের দ্রুততম’ স্মার্টফোন
—প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভারতে শীঘ্রই লঞ্চ করতে চলেছে চিনা সংস্থা Xiaomi-এর নতুন ফ্ল্যাগশিপ ফোন Redmi K20 Pro।  সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় Redmi K20 Pro-এর একটি টিজার প্রকাশ্যে আনে Xiaomi। সেই পোস্ট-এ এই ফোনটিকে বিশ্বের দ্রুততম ফোন বলে দাবি করে সংস্থা। মে মাসেই চিনে Redmi K20-এর পাশাপাশি Redmi K20 Pro প্রকাশ্যে আনে সংস্থা। জানা যাচ্ছে, Redmi K20 Pro-এ থাকছে শক্তিশালী octa-core প্রসেসর এবং Snapdragon 855 SoC চিপসেট। দুর্দান্ত গেমিং-এর অভিজ্ঞতার জন্য থাকছে ৮ জিবি RAM। এখনকার ট্রেন্ড বজায় রেখে Redmi K20 Pro-তে থাকছে পপ আপ সেলফি ক্যামেরা। 
Redmi India-এর টুইটার অ্যাকাউন্ট-এ সম্প্রতি একটি টিজার প্রকাশ করে সংস্থা। সেখানে জানানো হয় শীঘ্রই ভারতের বাজারে আসতে চলেছে এই ফোন। 

আরও পড়ুন: এ বার ৬৪ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা-সহ ফোন আনছে Xiaomi
এই সেগমেন্টের অপর এক ফোন OnePlus 7 Pro-এর সঙ্গে এই ফোন জোর টক্কর দেবে বলে মনে করা হচ্ছে।সম্প্রতি, OnePlus 7 Pro-কে দ্রুততম ফোন বলে দাবি করে সংস্থা। এ বার সেই ফোনকে টেক্কা দিতেই বাজারে তাদের এই নতুন ফোন আনছে Xiaomi। কোনও সংস্থার নাম না নিয়েই Xiaomi তাদের টুইটার-এ লেখে "কিছু সেলিব্রেশন ক্ষণস্থায়ী"। Xiaomi-এর এই মন্তব্য Oneplus-এর উদ্দেশ্যেই করা বলে মনে করছেন টেক উত্সাহীরা।

আসুন দেখে নেওয়া যাক বিশ্বের দ্রুততম ফোনের দাবিদার Redmi K20 Pro-এর স্পেশিফিকেশন...
১) Redmi K20 Pro-তে থাকছে শক্তিশালী ৮ জিবি RAM। 
২) মসৃণ গেমিং-এর অভিজ্ঞতার জন্য থাকছে octa-core প্রসেসর এবং Snapdragon 855 SoC চিপসেট।
৩) ফোনের ডিসপ্লে ৬.৩৯ ইঞ্চি। AMOLED full-HD+ ডিসপ্লে থাকছে এই ফোন-এ। ডিসপ্লে-এর তলাতেই থাকছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। 
৪) Redmi K20 Pro-তে থাকছে ৪৮+১৩+৮ মেগাপিক্সেল-এর উচ্চমানের ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা-এর সেটআপ। সেলফি-এর জন্য থাকছে ২০ মেগাপিক্সেল-এর সেলফি ক্যামেরা। 
৫) উচ্চমানের স্পেসিফিকেশন-কে পাল্লা দিয়ে থাকছে ৪,০০০ mAh-এর ফাস্ট চার্জিং-এর সুবিধাযুক্ত ব্যাটারি।
চিনে এই ফোনের মুল্য রাখা হয়েছে ২,৪৯৯ ইয়ান(ভারতীয় মুদ্রায় ২৫,২০০ টাকা)। ভারতেও তার আশেপাশেই দাম হবে বলে মনে করা হচ্ছে।