close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

মালিয়ার প্রত্যর্পণে জেলের ভিডিও দেখতে চাইল লন্ডন আদালত

প্রত্যর্পণের বিষয়ে এর আগে আদালতে ভারতীয় জেলের ‘দুরাবস্থার’ কথা জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল বিজয় মালিয়া। যেহেতু লন্ডনের আদালতে মালিয়ার মামলা চলছে, সেই দেশের জেলের মান অনুযায়ী তার স্বচ্ছন্দ্য ভারতকে নিশ্চিত করতে হবে বলে জানিয়েছিলেন বিচারপতি আরবথনট

Updated: Sep 12, 2018, 08:09 PM IST
মালিয়ার প্রত্যর্পণে জেলের ভিডিও দেখতে চাইল লন্ডন আদালত
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: ঋণ খেলাপীতে অভিযুক্ত বিজয় মালিয়ার প্রত্যর্পণে ভারতের জেলের ভিডিও দেখতে চাইল লন্ডনের ওয়েস্টমিনিস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। বিচারপতি এমা আরবাথনট বুধবার জানান, ইউরোপের মানবাধিকার কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী আর্থার রোড জেলের ব্যারাক ১২-র স্বাচ্ছন্দ্য খতিয়ে দেখা হবে। উল্লেখ্য, লিকার ব্যারন মালিয়াকে মুম্বইয়ের এই জেলের ব্যারাক ১২-এ রাখা হবে বলে আদালতে জানিয়েছে সিবিআইয়ের আইনজীবী।

আরও পড়ুন- উচ্চ পর্যায়ের সিপেক বৈঠকে চিন-পাকিস্তান, অটুট বন্ধুত্বের বার্তা ইমরানের

প্রত্যর্পণের বিষয়ে এর আগে আদালতে ভারতীয় জেলের ‘দুরাবস্থার’ কথা জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন বিজয় মালিয়া। যেহেতু লন্ডনের আদালতে মালিয়ার মামলা চলছে, সেই দেশের জেলের মান অনুযায়ী তার স্বচ্ছন্দ্য ভারতকে নিশ্চিত করতে হবে বলে জানিয়েছিলেন বিচারপতি আরবথনট। সিবিআইয়ের আইনজীবীও সে বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়ে জানায়, মালিয়ার জন্য জেলে বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে। জেলে পর্যাপ্ত আলো, বাতাস না থাকার অভিযোগ তোলেন তিনি। তবে, সিবিআই এবং ইডির আইনজীবীও জানিয়ে দেন, মালিয়ার জন্য বিশেষ জেলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। মালিয়া শারীরিক এবং মানসিকভাবে বিপর্যস্ত না হন, সে বিষয়ে আদালতে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে কেন্দ্র। ভারত মালিয়ার জন্য কী ব্যবস্থা নিচ্ছে সেই ভিডিওই খতিয়ে দেখতে চেয়েছেন বিচারপতি আরবাথনট। তিনি বলেন, “ধাপে ধাপে ভিডিও খতিয়ে দেখা হবে।” এই ভিডিওয়ের বিষয়ে বিচারপতি আরবাথনট আরও কয়েকটি শর্তও চাপিয়ে দিয়েছেন। ভিডিওটি দিনের আলোয় তুলতে হবে। কোনও কৃত্রিম আলো ব্যবহার করা যাবে না। জেলের জানালা কোন দিকে রয়েছে, সে সব বিষয়ে খতিয়ে দেখবেন বলে জানান বিচারপতি। শুনানির শেষে বিজয় মালিয়া সাংবাদিকদের মোট অঙ্কের টাকা মিটিয়ে দেওয়ার দাবি করেছেন। তাঁর এই সমঝোতায় সব ঋণ মিটে যাবে বলে দাবি মালিয়ার।  

আরও পড়ুন- ‘চোখ খোলো কুলসুম’ স্ত্রীর সঙ্গে নওয়াজের শেষ সাক্ষাতের ভিডিও ভাইরাল

দেউলিয়া হয়ে যাওয়া কিংফিশার এয়ারলাইনের কর্ণধার বিজয় মালিয়ার বিরুদ্ধে ৯ হাজার কোটি টাকার বেশি ঋণ খেলাপের অভিযোগ ওঠে। ২০১৬ মার্চ মাস থেকে দেশ ছাড়া হয় বিজয় মালিয়া। কিংফিশার এয়ারলাইন্সকে বাঁচাতে বিভিন্ন ব্যাঙ্ক থেকে প্রায় ৯৯৯০ কোটি টাকার ঋণ নেন বিজয় মালিয়া।  ডেবিট রিকভারি ট্রাইবুন্যাল নয়া নির্দেশ অনুযায়ী ইতিমধ্যে ১১.৫ শতাংশ সুদ-সহ আরও ৬,২০৩ কোটি টাকা মেটাতে হবে বিজয় মালিয়াকে।