ডোনাল্ড ট্রাম্প বিরোধিতার ঢেউ টেমস তীরেও

ট্রাম্প বিরোধিতার ঢেউ টেমস তীরেও। কার্যত নজিরবিহীনভাবে, মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ভাষণের বিরোধিতায় সুর চড়ালেন হাউস অফ কমন্সের স্পিকার জন বারকাউ। সবই ট্রাম্পের অভিবাসন তথা ভিসা নীতির জের। এবছরের শেষে ব্রিটেন সফরে যাওয়ার কথা ডোনাল্ড ট্রাম্পের। গতমাসে ওয়াশিংটনে গিয়ে তাঁকে এই আমন্ত্রণ জানিয়ে আসেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। এরই মধ্যে এই সফর ঘিরে চড়ছে বিতর্কের সুর। বিরোধিতার সুর জোরালো হচ্ছে। অনলাইন সই সংগ্রহও চলছে। তারমধ্যে স্পিকার বারকাউয়ের এমন কঠোর প্রতিক্রিয়া নিঃসন্দেহে তাত্‍পর্যপূর্ণ।

Updated By: Feb 7, 2017, 08:43 AM IST
ডোনাল্ড ট্রাম্প বিরোধিতার ঢেউ টেমস তীরেও

ওয়েব ডেস্ক: ট্রাম্প বিরোধিতার ঢেউ টেমস তীরেও। কার্যত নজিরবিহীনভাবে, মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ভাষণের বিরোধিতায় সুর চড়ালেন হাউস অফ কমন্সের স্পিকার জন বারকাউ। সবই ট্রাম্পের অভিবাসন তথা ভিসা নীতির জের। এবছরের শেষে ব্রিটেন সফরে যাওয়ার কথা ডোনাল্ড ট্রাম্পের। গতমাসে ওয়াশিংটনে গিয়ে তাঁকে এই আমন্ত্রণ জানিয়ে আসেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। এরই মধ্যে এই সফর ঘিরে চড়ছে বিতর্কের সুর। বিরোধিতার সুর জোরালো হচ্ছে। অনলাইন সই সংগ্রহও চলছে। তারমধ্যে স্পিকার বারকাউয়ের এমন কঠোর প্রতিক্রিয়া নিঃসন্দেহে তাত্‍পর্যপূর্ণ।

আরও পড়ুন এবার ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সরাসরি আইনি যুদ্ধে প্রায় তাবড় মার্কিন কর্পোরেট দুনিয়া

মার্কিন প্রেসিডেন্ট যেভাবে সাত মুসলিম প্রধান দেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন, তা মানুষের সমানাধিকার বিরোধী পদক্ষেপ। এতে জাতিবিদ্বেষ প্রকাশ পায়। মন্তব্য ব্রিটিশ স্পিকারের। সাংসদদের সামনেই বারকাউ বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ককে সম্মান করলেও, পার্লামেন্টে ভাষণ দিতে ট্রাম্পকে আমন্ত্রণ জানানোরই বিরুদ্ধে তিনি।

আরও পড়ুন  পাক বিরোধী স্লোগান উঠল ইসলামাবাদের পথে!