নির্মীয়মাণ বাড়িতে মাটি খুঁড়তেই শয়ে শয়ে বেরল স্বর্ণমুদ্রা

মাটির ঘড়ায় স্বর্ণমুদ্রা, বেশ একটা রহস্য রোমাঞ্চ সিরিজ বলা যায়।

Edited By: সোমনাথ মিত্র | Updated By: Aug 24, 2020, 06:24 PM IST
নির্মীয়মাণ বাড়িতে মাটি খুঁড়তেই শয়ে শয়ে বেরল স্বর্ণমুদ্রা

নিজস্ব প্রতিবেদন: মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এল শত শত স্বর্ণমুদ্রা। যখের ধন? সে প্রশ্নের উত্তর অবশ্য অজানা। তবে মাটির ঘড়ায় স্বর্ণমুদ্রা, বেশ একটা রহস্য রোমাঞ্চ সিরিজ বলা যায়।

ঘটনাটি মধ্য ইজরায়েলের। একটি নির্মীয়মাণ বাড়ির জমি থেকে স্বর্ণমুদ্রা খুঁজে বার করলেন একদল তরুণ তরুণী। ১৮ অগস্ট এই "গুপ্তধন" উদ্ধার হয়েছে বলে জানিয়েছে ইজরায়েল অ্যান্টিকুইটিজ কর্তৃপক্ষ। খনন কার্যের দায়িত্বে থাকা লিয়াত নাভাদ-জিভ জানিয়েছেন, আনুমানিক ১,১০০ বছর আগে যিনি এই স্বর্ণমুদ্রা মাটির তলায় পুঁতে দিয়েছিলেন। যাতে এই পাত্র অন্যত্র সরে না যায়, তার জন্য সব ব্যবস্থা করেছিলেন তিনি। অর্থাৎ তাঁর এই পাত্র পুনরুদ্ধারের পরিকল্পনা ছিল। তবে এই এত স্বর্ণমুদ্রার আসল মালিক কে, তা এখনও রহস্য।

"গুপ্তধনের"খোঁজ দেওয়া সেই তরুণদের মধ্যে ছিলেন ওজ কোহেন। তিনি বলেছেন,"আমি যখন মাটি খুঁড়ছিলাম, দেখলাম একটি পাতলা পাতার মতো। যখন আবার দেখলাম দেখি স্বর্ণমুদ্রা।" মুদ্রা বিশেষজ্ঞ রবার্ট কুল জানিয়েছেন ৪২৫ টি ২৪ ক্যারেট স্বর্ণমুদ্রা এখন মহার্ঘ্য। যা দাম হতে পারে তা দিয়ে মিশরের পুরনো রাজধানী ফুস্তাতে সবচেয়ে বিলাসবহুল বাড়িগুলির একটি হয়ে যাবে। এভাবেই বর্ণনা দিয়েছেন রবার্ট।

আরও পড়ুন: ভোটের আগে জোর ধাক্বা খেলেন ট্রাম্প! পদত্যাগের ঘোষণা তাঁর 'সেনাপতির'