কে খুন করল বরিস নেমস্তোভকে? যে রহস্যের সমাধান হবে না হয়ত কোনও দিন...

৩ দিন অতিক্রান্ত। এখনও রাশিয়ার বিরোধী দলনেতা বরিস নেমস্তোভ হত্যার কোনও কিনারাই হয়নি। ক্রেমলিনের অলি গলিতে এই খুন নিয়ে ঘুরছে বিবিধ তত্ত্ব। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট অদ্ভুতভাবে এই খুনের ঘটনাকে 'প্ররোচনা' আখ্যা দিয়েছেন। পুতিনের মত তাঁর সরকারকে বিপাকে ফেলতেই হত্যা করা হয়েছে নেমস্তোভকে। তাঁর দাবি যেহেতু রাষ্ট্রই এক্ষেত্রে শিকার তাই এই হত্যার দায় কোনও ভাবেই রাষ্ট্রের হতে পারে না।

Updated By: Mar 3, 2015, 02:52 PM IST
কে খুন করল বরিস নেমস্তোভকে? যে রহস্যের সমাধান হবে না হয়ত কোনও দিন...

মস্কো: ৩ দিন অতিক্রান্ত। এখনও রাশিয়ার বিরোধী দলনেতা বরিস নেমস্তোভ হত্যার কোনও কিনারাই হয়নি। ক্রেমলিনের অলি গলিতে এই খুন নিয়ে ঘুরছে বিবিধ তত্ত্ব। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট অদ্ভুতভাবে এই খুনের ঘটনাকে 'প্ররোচনা' আখ্যা দিয়েছেন। পুতিনের মত তাঁর সরকারকে বিপাকে ফেলতেই হত্যা করা হয়েছে নেমস্তোভকে। তাঁর দাবি যেহেতু রাষ্ট্রই এক্ষেত্রে শিকার তাই এই হত্যার দায় কোনও ভাবেই রাষ্ট্রের হতে পারে না।

অনেকে আবার ইসলামিক মৌলবাদীদের এই ঘটনার জন্য দায়ি করেছেন। কেউবা দায় চাপিয়েছেন ইউক্রেনের ফ্যাসিবাদীদের উপর। পুতিনের জোট সঙ্গীদের দাবি 'পশ্চিমি গুপ্তচর'-রাই খুন করেছে নেমস্তোভকে। কুৎসা ও কেচ্ছা করার জন্য 'কুখ্যাত' ওয়েবসাইট Lifenews.ru-এর মতে রাশিয়ার এই বিখ্যাত বিরোধী রাজনীতির নেতার মৃত্যুর আসলি কারণ তাঁর বর্ণময় 'প্রেম জীবন'। ক্রেমলিনের রাস্তায় যখন তাঁর উপর হামলা হয় তখন তাঁর সঙ্গে ছিলেন এক ইউক্রেনিয়ান মডেল। জানিয়েছে এই ওয়েবসাইট।

মস্কোতে লাগাতার সরকার বিরোধী বক্তব্য পেশ করার জন্যই শুক্রবার রাতে খুন হতে হল বরিস নেমস্তোভকে, এই বক্তব্য হাওয়ায় ভাসলেও সাহস করে প্রকাশ্যে মুখ খুলতে চাইছেন না কেউই। ইউক্রেনে পুটিনের গোপন লড়াইয়ের চিরকাল খুল্লামখুল্লা সমালোচনা করে এসেছেন নেমস্তোভ। দাবি করে এসেছেন এই যুদ্ধে গত ১ বছরে প্রাণ গেছে অন্তত ৬ হাজার মানুষের। নেমস্তোভের বন্ধুদের দাবি কিছু দিনের মধ্যেই পুতিনের এই 'হত্যালীলা' র সমস্ত গোপন তথ্য ফাঁস করতে উদ্যোগী হয়ে ছিলেন তিনি।

পুতিন যে লাগাতার ইউক্রেনে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মদত যুগিয়ে আসছেন, গোড়া থেকেই তার তীব্র বিরোধীতা করে আসছিলেন নেমস্তোভ। বস্তুত, রাশিয়ায় থেকেই যে কজন পুতিনের সমালোচনা করার  সাহস দেখিয়েছেন নেমস্তোভ তাঁদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন। ক্রিমিয়াতে পুতিনের সমস্ত কার্যকলাপ তাঁর ভাষায় 'বেআইনি' ছিল। যদিও তিনি স্বীকার করে নিয়েছিলেন ক্রিমিয়ার সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষই রাশিয়াতে যোগদানের পক্ষে। শুক্রবার নিজের শেষ সাক্ষাৎকারে রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে ''প্যাথোলজিকাল মিথ্যেবাদী' বলে ছিলেন লিবেরাল এই নেতা।  

গত এক দশকে নেমস্তোভ রাশিয়ায় বহু পুতিন বিরোধী আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। রাষ্ট্রের নির্দেশে এক সময় তাঁকে ব্যান করেছিল রাশিয়ার মিডিয়া।

মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগেও তিনি দাবি করেছিলেন তাঁর কাছে এমন এক ডকুমেন্টারি আছে যাতে প্রমাণ হয়ে যাবে পুতিনের জন্য কীভাবে ইউক্রেনে মারা পড়ছেন রুশ সৈনিকরা।

সম্ভবত কোনও দিনও জানা যাবে না কে খুন করেছিল নেমস্তোভকে। হয়ত রাষ্ট্রের বিরুদ্ধতাই তাঁর মৃত্যুর কারণ। অনেকেরই অভিযোগ ছিল আসলে আমেরিকার হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি করেন নেমস্তোভ। তাই উগ্র জাতীয়তাবাদীদের হাতেও তাঁর খুন হওয়াটা আশ্চর্যের নয়। তাঁর বন্ধু, সহযোগীরা অবশ্য দাবি করেছেন যেহেতু পুতিন বারবার নেমস্তোভের বিরুদ্ধে ঘৃণা ও হিংসার পরিবেশ তৈরিতে মদত যুগিয়ে গেছেন তাই, নেমস্তোভকে যেই হত্যা করুক না কেন নৈতিক দায় পুতিনের উপরই বর্তায়।