দুনিয়ার সবচেয়ে বিপজ্জনক আর কঠিন কাজের সঙ্গে পরিচয় করুন

Updated By: Aug 21, 2014, 05:42 PM IST
দুনিয়ার সবচেয়ে বিপজ্জনক আর কঠিন কাজের সঙ্গে পরিচয় করুন

---------------------------------------------------------------------

ওয়েব ডেস্ক: অফিসে ৮- ৯ ঘণ্টা খাটাখাটি করে কী মনে হয় আপনার  কাজটা কী খুব কঠিন আর বাজে। তাহলে আসুন একটু পরিচয় করে নিন দুনিয়ার সবচেয়ে কঠিনতম কাজের সঙ্গে। ইউরোপের এক নামী সংস্থার করা সমীক্ষায় বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক আর কঠিন কাজ হিসাবে যাকে বাছা হয়েছে সেটি হল ইন্দোনেশিয়ার 'কাওয়া লজেন আগ্নেয়গিরি' (Kawah Ijen volcano)তে খনি শ্রমিক হিসাবে কাজ করা।

কোনও রকম মাস্ক না পরেই বিষাক্ত ধোঁয়ায় বসে আগ্নেয়গিরির ওপর থেকে খনিজ পদার্থ (বেশিরভাগটাই সালফার বা গন্ধক) সংগ্রহ করে আনতে হয়। তারপর পিঠে করে ৭০ কেজির ব্যাগে বয়ে আগ্নেয়গিরির উপর থেকে খনিজ পদার্থ নিয়ে আসতে হয়। বিষাক্ত ধোঁয়ায় বসে অনেকক্ষণ কাজ করতে হয় বলে এখানকার খনি শ্রমিকদের গড় আয়ু মাত্র ৫০ বছর।

নিউজিল্যান্ডের যে ফোটোগ্রাফার এই খনির ছবি তুলেছেন, তারা বলছেন বেশিক্ষণ ধরে এই আগ্নেয়গিরির ওপর কাজ করার ছবি তোলা যাচ্ছে না। কারণ বিষ ধোঁয়ায় চোখ জ্বালা করছে। অথচ প্রতিদিন এখানকার শ্রমিকদের দিনে ৯ ঘণ্টা সপ্তাহে ৭ দিন এই কাজ করতে হয়। তার ওপর আবার আছে ৭০ কেজি ভারী ব্যাগ কাঁধে অনেক উঁচু থেকে খনিজ পদার্থ নিচে নিমেয়ে আনার ঝুঁকি। কিন্তু পেটের তাগিদে এই কাজ করে বেঁচে আছেন ইন্দোনেশিয়ার এইসব শ্রমিকরা।

 

The workers, many of whom aren't expected to live past 50, breathe highly noxious gases which come out of the Kawah Ijen Volcano without masks, carrying loads of up to 70kg on their backs from a quarry.

Many work shirtless and have huge growths on their backs from the heavy loads.Photographer Brad Ambrose captured the pictures along with his pal Geoff Mackley, while trekking through Indonesia.The 38-year-old photographer said: "It would be one of the more dangerous jobs in the world – not just because of the fall risks, but because of the gases the miners work in."The majority are working in there with no masks to filter out the deadly gases.