ইছাপুরে বেপরোয়া দুষ্কৃতি তাণ্ডব

কোনও রাখঢাক,  ভয়ডর নেই। দিনের আলোয়, পাঁচজনের সামনে পিস্তল তাক করে পরপর গুলি। লক্ষ্য মিস হওয়ায়, এরপর বোমাবাজি। দাবিমতো তোলা না দেওয়ায়, এভাবেই ব্যবসায়ীকে খুনের চেষ্টা হল ইছাপুরে। ঘটনার পর থেকে ফেরার অভিযুক্তরা।   

Updated By: Jul 2, 2016, 06:28 PM IST
ইছাপুরে বেপরোয়া দুষ্কৃতি তাণ্ডব

ওয়েব ডেস্ক: কোনও রাখঢাক,  ভয়ডর নেই। দিনের আলোয়, পাঁচজনের সামনে পিস্তল তাক করে পরপর গুলি। লক্ষ্য মিস হওয়ায়, এরপর বোমাবাজি। দাবিমতো তোলা না দেওয়ায়, এভাবেই ব্যবসায়ীকে খুনের চেষ্টা হল ইছাপুরে। ঘটনার পর থেকে ফেরার অভিযুক্তরা।   

 

শনিবার সকালে এখানেই বিরিয়ানি রান্নায় ব্যস্ত ছিলেন ভীম কাহার। ছোট ব্যবসা, বিরিয়ানি বিক্রির। ইছাপুরে ঘোষপাড়া রোডে দোকান। সেখানে যাওয়ার আগে, রোজের মতোই বন্ধ ডানবার মিলের মাঠে রান্নায় ব্যস্ত ছিলেন ভীম। তাকে টার্গেট করে, সেখানেই হানা দেয় দুষ্কৃতীরা।

 

মোট ছ জন বাইকে করে এসে এই হামলা চালায়। তিন জনের মুখে কাপড় বাঁধা থাকলেও, বাকিদের মুখ খোলা ছিল। প্রথমেই দু রাউন্ড গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। কান ঘেঁষে গুলি বেরিয়ে যায় ভীম কাহারের। লোক জড়ো হয়ে যাওয়ায়, এরপর পালাতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে আততায়ীরা। তবে যাওয়ার আগেও তিনটি বোমা ছোড়ে তারা। দুটি ফাটলেও, কেউ আঘাত পাননি। একটি বোমা ফাটেনি।

 

যাদের মুখ খোলা ছিল, সেই তিন জনকেই চিনে ফেলেন ভীম কাহার। ব্যবসায়ীর দাবি, জিতেন্দ্র সিং, অজয় সিং ও রাজু সিং,  এই তিন ভাই হামলা চালায় তাঁর ওপর। পুলিসের খাতাতেও নাম রয়েছে এদের। তোলার দাবিতে তাঁকে আগেও বহুবার শাসানো হয়েছে বলে অভিযোগ। 

দুষ্কৃতীদের ছোঁড়া গুলিতে আহত সিভিক পুলিসকর্মী

 

পালানোর সময়ও স্বমূর্তিতে হামলাকারীরা। যাওয়ার সময় শাশানি, "এবার হয়নি। পরের বার কে বাঁচায় দেখব!" একথা বলতে বলতেই এলাকা ছাড়ে আততায়ীরা। এতটাই দুঃসাহস। ঘটনায় আতঙ্কিত স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।