ছেলের মৃত্যুর দুঃখে আত্মঘাতী বাবা মা

একমাত্র ছেলের স্মৃতিতে প্রায় সর্বস্ব বিলিয়ে দিয়েছিলেন। তবু সেই মৃত্যু কিছুতেই মন থেকে মেনে নিতে পারেননি। কুরে কুরে খাওয়া সেই যন্ত্রণার সঙ্গে লড়াইয়ে অবশেষে হেরেই গেলেন ওঁরা। আত্মঘাতী হলেন চন্দননগরের প্রবীণ দম্পতি।

Updated By: Apr 11, 2015, 07:03 PM IST
ছেলের মৃত্যুর দুঃখে আত্মঘাতী বাবা মা

ওয়েব ডেস্ক:একমাত্র ছেলের স্মৃতিতে প্রায় সর্বস্ব বিলিয়ে দিয়েছিলেন। তবু সেই মৃত্যু কিছুতেই মন থেকে মেনে নিতে পারেননি। কুরে কুরে খাওয়া সেই যন্ত্রণার সঙ্গে লড়াইয়ে অবশেষে হেরেই গেলেন ওঁরা। আত্মঘাতী হলেন চন্দননগরের প্রবীণ দম্পতি।

চন্দননগরের গোন্দলপাড়ার মুখার্জি পরিবারে বিনা মেঘেই যেন বাজ পড়েছিল সেদিন। একমাত্র ছেলে সৌরভের মৃত্যুসংবাদে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছিলেন সূর্যকুমার মুখার্জি ও তাঁর স্ত্রী। তারপর থেকে ছেলের স্মৃতিরক্ষাই মুখার্জি দম্পতির ধ্যানজ্ঞান হয়ে দাঁড়ায়। ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার সূর্যকুমার মুখার্জির দেওয়া ৩০ লক্ষ টাকায় তৈরি হয় পুরসভার স্কুলের নতুন একটি ভবন । ছেলের স্মৃতিরক্ষায় দুঃস্থদের চিকিত্‍সায় অগ্রণী একটি সংগঠনকে নিজেদের বাড়িও দান করে দেন মুখার্জি দম্পতি। কিন্তু ৫ বছর আগের সেই অঘটনের ছায়া তবু মন থেকে মুছে ফেলতে পারেননি ওই দম্পতি। কিন্তু তার পরিণতি যে এমন মর্মান্তিক হতে পারে তা কেউই আঁচ করতে পারেননি।বিদ্যুতের ছোবল প্রাণ কেড়েছিল ছেলের। সেই বিদ্যুত্‍স্পর্শেই জীবন বিসর্জন দিয়ে হয়তো সান্ত্বনা খুঁজে নিলেন প্রবীণ এই দম্পতি। শোকের ছায়া নেমেছে গোটা এলাকায়।