কার্ড নেই, চাল কেনার টাকা নেই, ব্যাঙ্কের সামনে কেঁদে ভাসাচ্ছেন বৃদ্ধ

ঘরে আর টাকা নেই। ৫০০, ১০০০ যা ছিল সব জমা হয়ে গেছে। ATM কার্ডও নেই। ব্যাঙ্কে লাইন দিয়েও মিলছে না টাকা। চাল কেনার পয়সা নেই। ব্যাঙ্কের সামনেই কেঁদে ভাসাচ্ছেন সত্তোর্ধ বৃদ্ধ।

Updated By: Nov 19, 2016, 09:22 AM IST
কার্ড নেই, চাল কেনার টাকা নেই, ব্যাঙ্কের সামনে কেঁদে ভাসাচ্ছেন বৃদ্ধ

ওয়েব ডেস্ক : ঘরে আর টাকা নেই। ৫০০, ১০০০ যা ছিল সব জমা হয়ে গেছে। ATM কার্ডও নেই। ব্যাঙ্কে লাইন দিয়েও মিলছে না টাকা। চাল কেনার পয়সা নেই। ব্যাঙ্কের সামনেই কেঁদে ভাসাচ্ছেন সত্তোর্ধ বৃদ্ধ।

একদিন নয়। গত দু দিন ধরে এই অবস্থার সামনে পড়েছেন শিলিগুড়ির বাতাসী এলকার বাসিন্দা শ্রীদামচন্দ্র বিশ্বাস। ৫০০, ১০০০-এর নোট বাতিল হয়ে গেছে। খবর শুনে তড়িঘড়ি বাড়িতে রাখা ৪২ হাজার টাকা জমা দিয়েছিলেন বাতসীর সেন্ট্রাল ব্যাঙ্কে। কিন্তু টাকা তুলতে যে এত বিপত্তি হবে ভাবেন নি। গত দু-দিন ধরে টাকা তুলতে পারছেন না। বাড়িতে টাকা নেই। টাকা নেই বেল তাই দোকানদার চালও দিচ্ছে না, দিনআনি দিন খাই শ্রীদামচন্দ্র বিশ্বাসকে। কিন্তু এসব কথা পেট শুনবে কেন। বাড়িতে পাঁচ জন।

ব্যাঙ্কের সামনে লাইন দেওয়ার জন্য কাজে যাওয়া হচ্ছে না। বর্তমান অবস্থায় কাজও তেমন মিলছে কই । তাই কান্না ছাড়া উপায় কী। টাকা না নিয়ে আর বাড়ি ফিরবেন না, এই পণ করে ব্যাঙ্কের সামনেই বসে পড়েন বৃদ্ধ শ্রীদাম চন্দ্র। আরও পড়ুন, ৭০ কিলোমিটার হেঁটে, একটা ২০০০-এর নোট নিয়ে বাড়ি ফিরলেন চাষী