সোনারপুরে প্রোমোটারকে বন্দুকের বাট দিয়ে মার, গুলিতে জখম কর্মচারী

হরিদেবপুর, গড়িয়ার পর এবার সোনারপুর। দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা জুড়ে লাগাতার চলছে  দুষ্কৃতী দৌরাত্ম্য। সিন্ডিকেট দৌরাত্ম্যের পর এবার প্রকাশ্যে শাসকদলের তোলাবাজিও। প্রোমোটারকে বন্দুকের বাট দিয়ে শুধু মারই নয়।  পর পর সাত রাউন্ড চলল গুলিও। এক্ষেত্রেও জখম হলেন নিরীহ কর্মচারী। স্থানীয় কাউন্সিলরের ছত্রছায়াতেই এলাকায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে দুষ্কৃতীরা। তবে সব জেনেশুনেও চুপ পুলিস। অভিযোগ বাসিন্দাদের।  

Updated By: Oct 11, 2015, 10:11 AM IST

ওয়েব ডেস্ক: হরিদেবপুর, গড়িয়ার পর এবার সোনারপুর। দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা জুড়ে লাগাতার চলছে  দুষ্কৃতী দৌরাত্ম্য। সিন্ডিকেট দৌরাত্ম্যের পর এবার প্রকাশ্যে শাসকদলের তোলাবাজিও। প্রোমোটারকে বন্দুকের বাট দিয়ে শুধু মারই নয়।  পর পর সাত রাউন্ড চলল গুলিও। এক্ষেত্রেও জখম হলেন নিরীহ কর্মচারী। স্থানীয় কাউন্সিলরের ছত্রছায়াতেই এলাকায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে দুষ্কৃতীরা। তবে সব জেনেশুনেও চুপ পুলিস। অভিযোগ বাসিন্দাদের।  

পরপর গুলি চলার ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে কেন এখনও  কেন হাত গুটিয়ে উর্দিধারীরা? কোথায় থেকেই বা রাজ্যে আসছে এত বেআইনি অস্ত্র?  আইনের রক্ষক থেকে প্রশাসক, কেউ কি কিছুই জানেন না? সত্যিই কি তবে শাসকদলের মদতেই এত বাড়বাড়ন্ত দুষ্কৃতীদের ?  উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন।