ঠান্ডার কামড়ে পঞ্জাবের অম্বালাকে টেক্কা দিল বঙ্গের কোচবিহার

যাও গো এবার যাওয়ার আগে কাঁপিয়ে দিয়ে যাও। পৌষের শেষ দিন, শীতের ধুন্ধুমার ব্যাটিংয়ে এটাই হল ক্যাচলাইন। ঠান্ডার কামড়ে পঞ্জাবের অম্বালাকে টেক্কা দিল বঙ্গের কোচবিহার। মিঠে রোদ পিঠে নিয়ে দিনভর চলল হুটোপুটি। আমার প্রাণের পরে চলে গেল কে? হিমেল বাতাসটুকুর মতো। রবি ঠাকুরের গানের কলি বদলে আজ এভাবে শীত বন্দনা করা যেতেই পারে।

Updated By: Jan 14, 2017, 06:44 PM IST
ঠান্ডার কামড়ে পঞ্জাবের অম্বালাকে টেক্কা দিল বঙ্গের কোচবিহার

ওয়েব ডেস্ক: যাও গো এবার যাওয়ার আগে কাঁপিয়ে দিয়ে যাও। পৌষের শেষ দিন, শীতের ধুন্ধুমার ব্যাটিংয়ে এটাই হল ক্যাচলাইন। ঠান্ডার কামড়ে পঞ্জাবের অম্বালাকে টেক্কা দিল বঙ্গের কোচবিহার। মিঠে রোদ পিঠে নিয়ে দিনভর চলল হুটোপুটি। আমার প্রাণের পরে চলে গেল কে? হিমেল বাতাসটুকুর মতো। রবি ঠাকুরের গানের কলি বদলে আজ এভাবে শীত বন্দনা করা যেতেই পারে।

আরও পড়ুন মোদীর রাজ্য ক্রিকেটে প্রথমবার ভারত সেরা পার্থিবের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে

শীত-বাজারে ঠান্ডা লড়াই। পঞ্জাবের অম্বালাকে টেক্কা, পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারের। পাঁচ দশমিক ছয় ডিগ্রির ওপর ভারী পড়ল, কোচবিহারের চার দশমিক সাত ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা। মোটের ওপর রাজ্যজুড়ে শীতের দাপট জারি। পৌষের শেষ দিনে, শীতে সংক্রান্তি। একেবারে জাঁকিয়ে ঠাণ্ডা। মরসুমের শীতলতম দিন আজ।

কলকাতায় তাপমাত্রার পারদ নামল এগারো দশমিক নয় ডিগ্রি সেলসিয়াসে। এর আগে তাপমাত্রা বারোর ঘরে ঘোরাঘুরি করলেও, তার নিচে কখনই নামেনি। তবে পৌষের শেষে যেন, ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের মেজাজে শীত। উত্তরবঙ্গের জেলাগুলি প্রবল ঠান্ডায় আরও বেশি কাবু। বইছে কনকনে উত্তুরে হাওয়া। পশ্চিমি ঝঞ্ঝা বা বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণাবর্তের কোনও বাধা নেই। শীতের জন্য অল ক্লিয়ার রাস্তা। হাড়কাঁপানো ঠাণ্ডায় তাই জমজমাট শীত, পৌষ সংক্রান্তির দিনে।

আবহাওয়া - এই মরসুমের শীতলতম দিন। কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.৯। স্বাভাবিকের চেয়ে ২ ডিগ্রি কম। পৌষ সংক্রান্তিতে জাঁকিয়ে শীত।

আরও পড়ুন নীল জার্সিতে প্রথমবার টস করার আগে ধোনি, যুবির প্রশংসায় পঞ্চমুখ বিরাট