সারদা আতঙ্ক: জেলায় জেলায় হাহাকার আর বিক্ষোভ জোরাল হচ্ছে

Last Updated: Thursday, April 25, 2013 - 21:41

সারদা গোষ্ঠীর প্রতারণার খবর ছড়িয়ে পড়তেই জেলায় জেলায় হাহাকার আর বিক্ষোভ আরও জোরালো হচ্ছ। হুগলির পোলবায় সারদা গোষ্ঠীর গ্লোবাল মোটর্সের কর্মীরা কারখানা খোলার দাবিতে অনশন শুরু করেছেন। আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটার জটেশ্বর গ্রামে অন্য একটি চিটফান্ডে টাকা রেখে সবর্স্ব খুইয়েছেন গ্রামের গরীব কৃষকরা। ঘটনার পর থেকেই বেপাত্তা নামগোত্রহীন ওই চিটফান্ডের মালিক।
পোলবার গ্লোবাল মোটর্স। রাজ্যের প্রথম মোটরবাইক এসেম্বলিংয়ের কারখানা। আবার এই কারখানাই সারদা গোষ্ঠীর কর্ণধার সুদীপ্ত সেনের প্রতারণার আরও একটি নিদর্শন। প্রায় তিন মাস বেতন বন্ধ, সারদার মালিক গ্রেফতার। কারখানা খোলার দাবিতে অনশনে নেমেছেন কারখানার দেড়শো কর্মী। অন্য কোনও সংস্থাকে দিয়ে কারখানা খোলা হোক।
২০১০ সালে সারদা গোষ্ঠী কারখানা নেওয়ার পর থেকেই বন্ধ কারখানার উত্‍পাদন।  জঙ্গলমহলের জন্য সরকারকে সারদা গোষ্ঠীর তরফে যে অ্যাম্বুলেন্স দেওয়া হয়েছিল তা ছিল এই কারখানার নামেই। বৃহস্পতিবার সারদা মালিকের শাস্তির দাবিতে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান হুগলি জেলা কংগ্রেস নেতৃত্ব।
 
সারদার মতোই চিটফান্ডে টাকা রেখে সর্বস্ব খুইয়েছেন আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটা ব্লকের জটেশ্বর গ্রামের বাসিন্দারা। স্থানীয় যুবক বঙ্কিম দেবনাথের কাছে টাকা রেখেছিলেন আমানতকারীরা। বঙ্কিমের বিরুদ্ধে কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ তুলেছেন গ্রামবাসীরা।
 
সাতই মার্চ থেকে বেপাত্তা নামগোত্রহীন চিটফান্ড কোম্পানির মালিক বঙ্কিম দেবনাথ।  এতদিন হয়ে যাওয়ার পরেও কেন পুলিস গ্রেফতার করতে পারছেনা বঙ্কিম দেবনাথকে তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন গ্রামবাসীরা।



First Published: Friday, April 26, 2013 - 21:30


comments powered by Disqus