close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

অবিলম্বে ভবিষ্যতের ভূতের প্রদর্শন ব্যবস্থা করুন, রাজ্যকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

 বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় ও হেমন্ত গুপ্তার  বেঞ্চ স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে কোনও ভাবেই ভবিষ্যতের ভূতের প্রদর্শন বন্ধ করা যাবে না।

Updated: Mar 27, 2019, 07:42 PM IST
অবিলম্বে ভবিষ্যতের ভূতের প্রদর্শন ব্যবস্থা করুন, রাজ্যকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

নিজস্ব প্রতিবেদন: অবিলম্বে 'ভবিষ্যতের ভূত'-এর প্রদর্শন শুরু করতে হবে। শুক্রবার, রাজ্য সরকারকে এমনই নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় ও হেমন্ত গুপ্তার  বেঞ্চ স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে কোনও ভাবেই ভবিষ্যতের ভূতের প্রদর্শন বন্ধ করা যাবে না।

শীর্ষ আদালতের তরফে রাজ্য সরকারকে পাঠানো নির্দেশে অবিলম্বে ছবিটি প্রদর্শনের ব্যবস্থা করার কথা বলা হয়েছে এবং এবিষয়ে মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব ও ডিজিকে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে প্রেক্ষাগৃহে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। নোটিসে বলা হয়েছে সেন্সর বোর্ডের তরফে ছাড়পত্র পাওয়ার পর কেউই এভাবে কোনও ছবি বন্ধ করতে পারে না।

আরও পড়ুন-লোকসভা ভোটের মধ্যেই মুক্তি পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর বায়োপিক

এদিকে ভবিষ্যতের ভূতে প্রযোজক সংস্থার তরফে শীর্ষ আদালতকে জানানো হয়, ছবিটি মুক্তির আগে কলকাতা পুলিসের গোয়েন্দা বিভাগের তরফে তাঁদের কাছে পাঠানো চিঠিতে ছবিটি তাঁদের আগাম প্রদর্শনের দাবি জানানো হয়েছিল। ছবিটি রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ব্য়হত করতে পারে, এমনতি মানুষের ভাবাবেগে আঘাত করতে পারে বলেও চিঠিতে দাবি করা হয়েছিল।  আর এরপরেই ছবিটি মুক্তির পর কাউকে কিছু না বলে ছবিটি রাজ্যের বেশিরভাগ হল থেকেই তুলে নেওয়া হয়। 

এদিকে সুপ্রিম কোর্ট ছবিটি প্রদর্শনের যে নির্দেশ দিয়েছে সেবিষয়ে Zee ২৪ ঘণ্টা ডিজিটালের তরফে পরিচালক অনীক দত্তের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ''সুপ্রিম কোর্ট যে নিদের্শ  দিয়েছে তা প্রত্যাশিতই ছিল। আদালত কড়া নির্দেশ দিয়েছে।''

প্রসঙ্গত গত ১৫ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পায় পরিচালন অনীক দত্তের ছবি ভবিষ্যতের ভূত। ছবি মুক্তির ঠিক পরদিন অর্থাৎ ১৬ ফেব্রুয়ারি থেকেই ছবিটি রাজ্যের বেশিরভাগ হল থেকে তুলে নেওয়া হয়। তবে কী কারণে বা কার নির্দেশে ছবিটি প্রেক্ষাগৃহগুলি থেকে তুলে নেওয়া হল তার কোনও সঠিক জবাব পাওয়া যায়নি। এরপরেই ভবিষ্যতের ভূতের প্রদর্শন বন্ধের প্রতিবাদে পথে নামেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, অপর্ণা সেন থেকে শুরু করে রাজ্যের কলা কুশলীদের একাংশ।

আরও পড়ুন-মাধুরীর হাতে থুতু ফেলেছিলেন আমির? সে কী কথা!