মদ্যপান করলে কি ঠেকানো যাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ? জেনে নিন কী বলছে WHO

এই তত্বকে বিশ্বাস করতে শুরু করেছেন অনেকে। জেনে নিন এর সত্যতা সম্পর্কে কী জানাল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO...

Edited By: সুদীপ দে | Updated By: Mar 11, 2020, 01:31 PM IST
মদ্যপান করলে কি ঠেকানো যাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ? জেনে নিন কী বলছে WHO

নিজস্ব প্রতিবেদন: এ পর্যন্ত গোটা বিশ্বে মোট করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ১৯ হাজার ২৪৫ জন। এ পর্যন্ত ৪,৩০০ জনের প্রাণ কেড়েছে এই ভাইরাস। এই ভাইরাসে ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এ পর্যন্ত ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৬২। আতঙ্কের পাশাপাশি ছড়িয়ে পড়ছে একাধিক গুজব আর ভ্রান্ত ধারণা যা বিভ্রান্ত করছে লক্ষ লক্ষ সাধারণ মানুষকে।

নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ছে একাধিক ধারণা ও মতামত। যেমন, চিকেন থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে— এই ধারণা বিশ্বাস করেছেন অনেকেই। ছেড়েছেন চিকেন খাওয়া। কোথাও আবার দাবি করা হয়েছে, অ্যালকোহল সেবনে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো সম্ভব হবে। অর্থাৎ, মদ্যপান করলেই নাকি সেরে যাবে করোনাভাইরাস!

শুধু মদ্যপানেই নয়, গায়ে, মাথায় অ্যালকোহল ছিটিয়ে নিলে করোনাভাইরাস শরীরের ধারে-কাছেও ঘেঁষবে না। অদ্ভুত ভাবেই এই তত্বকে বিশ্বাস করতে শুরু করেছেন অনেকে। অথচ, যথাযথ বিজ্ঞানসম্মত সাবধানতার বালাই নেই! তাই শেষে আসরে নামে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO। WHO স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, অ্যালকোহল সেবনে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো সম্ভব— এই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। এই ভাইরাস একবার শরীরে প্রবেশ করার পর মদ্যপান করে বা গায়ে মদ ছিটিয়ে কোনও ফল হবে না। শুধু তাই নয়, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মদ্যপান কোনও ভাবেই সহায়ক নয়।

আরও পড়ুন: ৫৬ শতাংশ করোনা-রোগী বাড়ি ফিরেছেন সুস্থ হয়ে! তাই সতর্ক থাকুন, আতঙ্কিত নয়

তাহলে কী ভাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো সম্ভব?

এ ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ হল, কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড ধরে ভাল করে হাত ধুতে হবে। ভাল করে হাত না ধুয়ে চোখে, মুখে বা নাকে হাত দেওয়া যাবে না। অসুস্থ থাকলে বাড়িতেই থাকার চেষ্টা করুন এবং চিকিত্সকের পরামর্শ মেনে চলুন। হাঁচি-কাশি বা সর্দির সময় রুমালের বদলে টিস্যু ব্যবহার করুন। নিজেকে সব সময় পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করুন। উপযুক্ত মাস্ক ব্যবহার করুন। ৬০ শতাংশের বেশি অ্যালকোহল রয়েছে, এমন হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করলে জীবাণু মরে যায়। ফলে তেমন হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা ভাল। হাত পরিষ্কার করার জন্য অ্যালকোহল এবং ক্লোরিনের ব্যবহার করা যেতে পারে। সব মিলিয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিত্সকের পরামর্শে সুস্থ থাকুন উপযুক্ত সতর্কতায়।