close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

ঝুঁকিহীন অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি অস্ত্রপচারের নতুন দিশা আইভাস (IVUS) পদ্ধতি

আসুন জেনে নেওয়া ‘অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি’ অস্ত্রপচারের নতুন বিকল্প ব্যবস্থা সম্পর্কে কী বলছেন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডঃ দিলীপ কুমার...

Sudip Dey | Updated: Apr 10, 2019, 05:26 PM IST
ঝুঁকিহীন অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি অস্ত্রপচারের নতুন দিশা আইভাস (IVUS) পদ্ধতি
হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডঃ দিলীপ কুমার।

সুদীপ দে: ডায়াবেটিস বা কিডনির সমস্যা থাকলে ‘অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি’ অস্ত্রপচার করা যে বেশ ঝুঁকিপূর্ণ এবং বিপজ্জনক তা আমরা এই সংক্রান্ত প্রথম প্রতিবেদন থেকেই জেনেছি। কারণ, হার্ট এক্স-রে (অ্যাঞ্জিওগ্রাম) বা অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি অস্ত্রপচারের সময় কনট্রাস্ট ডাই নামের ঘন, পিচ্ছিল, তরল জাতীয় যে পদার্থটি ব্যবহৃত হয়, সেটির প্রভাবে শরীরে ক্রিয়েটিনিনের মাত্রা চূড়ান্ত সীমায় পৌঁছায় যা ডায়াবেটিস বা কিডনির সমস্যায় আক্রান্ত ব্যক্তিকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিতে পারে। ওই প্রতিবেদনের শেষে এ কথাও জেনেছি যে, কনট্রাস্ট ডাই ব্যবহার না করেও ‘অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি’ অস্ত্রপচার করার বিকল্প ব্যবস্থাও রয়েছে। আসুন এ বার জেনে নেওয়া ‘অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি’ অস্ত্রপচারের নতুন বিকল্প ব্যবস্থা সম্পর্কে কী বলছেন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডঃ দিলীপ কুমার...

অ্যাঞ্জিওগ্রামের সময় ব্যবহৃত কনট্রাস্ট ডাই কিডনির পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকর। কিডনির সমস্যায় ভুগছেন এমন রোগীদের মধ্যে ‘করোনারি অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি’ অস্ত্রপচারে তেমন ভাল ফল পাওয়া যায়নি। উল্টে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে রোগীদের শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। তাই অস্ত্রপচারের সময় রোগীদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি কমাতে বিকল্প হিসাবে ইনট্রা ভাসকুলার আল্ট্রাসাউন্ড (সংক্ষেপে IVUS) প্রযুক্তি প্রয়োগ করে অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করছেন ডঃ কুমার। তিনি জানান, ইমেজিং গাইডেন্স-এর সাহায্যে ইনট্রা ভাসকুলার আল্ট্রাসাউন্ড প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি অস্ত্রপচারে ১০০ শতাংশ সাফল্যও পাওয়া গিয়েছে। অর্থাৎ, নতুন এই ইনট্রা ভাসকুলার আল্ট্রাসাউন্ড প্রযুক্তিতে অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করে ডায়াবেটিস বা কিডনির সমস্যায় আক্রান্ত ব্যক্তিও প্রায় ঝুঁকিহীন অস্ত্রপচারে সুস্থ হয়ে উঠতে পারবেন। থাকবে না কনট্রাস্ট ইনডিউসড নেফ্রোপ্যাথি (CIN)-এ আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি।

আরও পড়ুন: ডায়াবেটিস বা কিডনির সমস্যা থাকলে অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টিতে রয়েছে মৃত্যুর আশঙ্কা!

ডঃ কুমার জানান, নতুন এই পদ্ধতি কাজে লাগিয়ে অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি অস্ত্রপচারের ঝুঁকি কমানোর সঙ্গে সঙ্গে শল্যচিকিৎসা ক্ষেত্রে এই বৈপ্লবিক পরিবর্তন সম্পর্কে মানুষকে অবগত এবং সচেতন করে তোলাই তাঁর লক্ষ্য। এ জন্য আগামী ১৪ এপ্রিল একটি বিশেষ সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করেছিন তিনি। তাঁর বিশ্বাস, অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি অস্ত্রপচারের নতুন এই পদ্ধতি সম্পর্কে মনুষ যত জানবে, তাঁরা তত বেশি নিশ্চিন্ত ও নিরাপদ বোধ করবেন। অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির মতো অস্ত্রপচারের ক্ষেত্রে যা অত্যন্ত জরুরি।

(শেষ)