অসুখের নাম যখন ট্রাম্প অ্যাংজাইটি ডিজঅর্ডার

অল্পতেই মেজাজ হারানো, যে কোনও পরিস্থিতিতে অসহায় লাগা, পরিস্থিতির উপর নিয়ন্ত্রণ হারানো, সোশ্যাল মিডিয়ায় অত্যধিক সময় কাটানো এই রোগের প্রধান কয়েকটি লক্ষণ।

Sudip Dey | Updated: Oct 10, 2018, 02:44 PM IST
অসুখের নাম যখন ট্রাম্প অ্যাংজাইটি ডিজঅর্ডার

নিজস্ব প্রতিবেদন: মানসিক চাপ আমাদের দৈনন্দিন জীবনের বেশ বড় একটি কষ্টদায়ক ব্যাপার। নানা কারণে আমরা দিনের বেশির ভাগ সময় মানসিক চাপের মধ্যে কাটাই। আর তার প্রভাব পড়ে আমাদের শরীরের উপরেও। হজমের সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা, অনিদ্রা, স্নায়ুর সমস্যা— ইত্যাদি নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে এই মানসিক চাপ থেকে। আর মানসিক চাপ, উদ্বেগে বুক ধড়ফড় করা, উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা, অনিদ্রা— এ সবই মার্কিন মনোরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে ‘ট্রাম্প অ্যাংজাইটি ডিজঅর্ডার’-এর লক্ষণ। হ্যাঁ, মার্কিন প্রসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামানুসারেই এই অসুখের নামকরণ করেছেন মার্কিন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ জেনিফার প্যানিং। অল্পতেই মেজাজ হারানো, যে কোনও পরিস্থিতিতে অসহায় লাগা, পরিস্থিতির উপর নিয়ন্ত্রণ হারানো, সোশ্যাল মিডিয়ায় অত্যধিক সময় কাটানো এই রোগের প্রধান কয়েকটি লক্ষণ।

আরও পড়ুন: চিনে নিন ভয়ানক মানসিক রোগ সিজোফ্রেনিয়া-র লক্ষণগুলি

ওয়াশিংটনের ‘কাউন্সেলিং অ্যান্ড ফিজিওথেরাপি সেন্টার’-এর মনোবিদ এলিজাবেথ লামোট-এর মতে, এই বিশেষ ধরনের দুশ্চিন্তা আর পাঁচটা দুশ্চিন্তার থেকে আলাদা। বিশেষ রকম রাজনৈতিক পরিবেশেই এই ধরনের দুশ্চিন্তার সৃষ্টি হয়। মার্কিন মনোবিদরা জানাচ্ছেন, এই রোগে আক্রান্তরা শুধু ট্রাম্প-বিরোধী নন। বহু ট্রাম্প-সমর্থকও এই রোগে আক্রান্ত। এ প্রসঙ্গে ট্রাম্প-পন্থী টিভি সাংবাদিক গ্রেগ গাটফেল্ডের মতে, মার্কিন সংবাদমাধ্যমের একটা বড় অংশ ট্রাম্প সম্পর্কে সমানে নেতিবাচক বা বিদ্রুপাত্মক খবর পরিবেশন করে। এরই কুপ্রভাব পড়ে জনমানসে। আর এর ফলেই মানসিক চাপ, উদ্বেগ আর বিশেষ ধরনের দুশ্চিন্তার সৃষ্টি হয়। মাস খানেক আগেই টুইট করে মার্কিন প্রসিডেন্ট ট্রাম্প অভিযোগ করেন ভাল কাজ করার পরও ৯০ শতাংশ মার্কিন সংবাদ মাধ্যম প্রশাসনের বিরুদ্ধে নেতিবাচক খবর পরিবেশন করে।