নতুন মায়েরা স্তন্যপান করানোর সময় এই জিনিসগুলি অবশ্যই খেয়াল রাখুন

স্তন্যপান করানোর সময় মেয়েদের অনেক কিছু মাথায় রাখতে হয়। অনেক মহিলাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে, প্রকাশ্যে স্তন্যপান করানো উচিত্‌ নাকি উচিত্‌ নয়? তাঁদের মধ্যে অনেকে মনে করেন, জনসমক্ষে সন্তানকে স্তন্যপান করানোর অনুমতি দেওয়া উচিত্‌।

Updated By: Aug 2, 2016, 12:30 PM IST
নতুন মায়েরা স্তন্যপান করানোর সময় এই জিনিসগুলি অবশ্যই খেয়াল রাখুন

ওয়েব ডেস্ক: স্তন্যপান করানোর সময় মেয়েদের অনেক কিছু মাথায় রাখতে হয়। অনেক মহিলাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে, প্রকাশ্যে স্তন্যপান করানো উচিত্‌ নাকি উচিত্‌ নয়? তাঁদের মধ্যে অনেকে মনে করেন, জনসমক্ষে সন্তানকে স্তন্যপান করানোর অনুমতি দেওয়া উচিত্‌।

আরও পড়ুন ওষুধ ছাড়াই কোলেস্টেরল কমান এই খাবারগুলি খেয়ে

বলা হয়, শিশুর কাছে তার মায়ের দুধই সবথেকে জরুরি এবং উপযুক্ত খাবার। অন্যান্য সমস্ত খাবারের তুলনায় অনেক বেশি নিউট্রিশন থাকে মায়ের দুধে। এটা শুধুমাত্র শিশুর জন্যই দরকারি নয়, একই সঙ্গে মায়ের জন্যেও। সদ্যোজাত শিশুর জন্য মায়ের দুধের থেকে বেশি উপকারী খাবার আর কিছু নয়। এখন অনেক মা মনে করেন, ৬ মাস বয়স পর্যন্ত শিশুকে স্তন্যপান করানো যথেষ্ট সময়। কিন্তু আসলে তা নয়। এটা শিশুর পক্ষে খুবই ক্ষতিকর। স্তন্যপান করানোর ফলে মা এবং শিশু উভয়েরই উপকার হয়।

স্তন্যপানের ফলে শিশু বিভিন্ন রকমের ভাইরাস এবং ব্যাকটেরিয়ার হাত থেকে রক্ষে পায়। তার রোগ প্রতিরোধকারী ক্ষমতা বাড়ে। শিশুকে হাঁপানি এবং বিভিন্ন প্রকার অ্যালার্জির হাত থেকে রক্ষা করে। মস্তিষ্কের উন্নতি করতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন জানুন জাফরান খেলে আপনার কী কী উপকার হবে

সদ্যোজাত শিশুরা গরুর দুধ দজম করতে পারে না। গরুর দুধে প্রচুর পরিমানে প্রোটিন, সোডিয়াম, পটাশিয়াম থাকে। কিন্তু ভিটামিন, আয়রন এবং প্রয়োজনীয় ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে না। কিন্তু এই সমস্ত প্রয়োজনীয় উপকরণগুলি শিশু একমাত্র তার মায়ের দুধেই পেতে পারে। প্রত্যেক সদ্যোজাত শিশুকে প্রত্যেকদিন ৮ থেকে ১০ বার স্তন্যপান করানো উচিত্‌।