গুরুতর জখম শিশুকে ভর্তি করাতে নাজেহাল পরিবার, জি ২৪ ঘণ্টার খবরের জেরে অবশেষে ঠাঁই SSKM-এ

গুরুতর যখম শিশুকে ভর্তি করাতে নাজেহাল পরিবার, জি ২৪ ঘণ্টার খবরের জেরে অবশেষে ঠাঁই SSKM-এ

Updated By: Jun 29, 2020, 11:45 PM IST
গুরুতর জখম শিশুকে ভর্তি করাতে নাজেহাল পরিবার, জি ২৪ ঘণ্টার খবরের জেরে অবশেষে ঠাঁই SSKM-এ
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণাই সার। রেফারের রোগ যেন কিছুতেই সারছে না। ফলে বলাগড়ে বাইক রেষারেষিতে গুরুতর জখম শিশুকন্যাকে ভর্তি করাতে নাজেহাল পরিবার। অবশেষে জি চব্বিশ ঘণ্টার খবরের জেরে সোমবার বেলা পৌনে বারোটা নাগাদ SSKM-এর ট্রমা কেয়ার ইউনিটে ভর্তি হল শিশুকন্যা।

আরও পড়ুন: করোনা যোদ্ধাদের কুর্নিশ! ডক্টরস ডে-তে স্বাস্থ্যকর্মীদের ছুটি ঘোষণা রাজ্যের

দয়া করে কেউ কিছু একটু করুন।  চার বছরের রক্তাক্ত, প্রায় চেতনাহীন শিশুকে কোলে করে SSKM এর বারান্দায় অঝোরে কাঁদছেন মা।  রবিবার বিকেল তিনটে থেকে এখনও পর্যন্ত কোনও হাসপাতালেই শিশুটিকে ভর্তি করা যায়নি। 

রবিবার দুপুরে বাকুলিয়া ধোবাপাড়ায় দুটি বাইকের রেষারেষিতে গুরুতর জখম হয় চার বছরের শিশুকন্যা ঈশা ভট্ট। প্রথমে তাকে কালনা মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। মাঝরাতে রেফার করা হয় বর্ধমান মেডিক্যালে। কিন্তু বেড না থাকায় ফের রেফার করা হয় কলকাতায়।

আরও পড়ুন: ময়নাতদন্তের রিপোর্টেও স্পষ্ট নয় যাদবপুরের কিশোরীর মৃত্যুর কারণ, ধোঁয়াশায় পুলিস
 

প্রতিবেশীদের থেকে চাঁদা তুলে কোনও মতে জোগাড় হয় অ্যাম্বুল্যান্স। ছোট্ট ইশাকে আনা হয় এসএসকেএমের জরুরি বিভাগে। সেখান থেকে পাঠানো হয় ট্রমা কেয়ার ইউনিটে। বেড না থাকায় ভর্তি হয়নি। পরিবারকে অন্য কোনও হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। তবে তাঁরা আর যাননি। 

এসএসকে এমের জরুরি বিভাগের সামনে মাথায় গুরুতর চোট পাওয়া শিশুকন্যাকে নিয়ে বসে পড়ে পরিবার। এরপর জি ২৪ ঘণ্টার খবরের জেরে অবশেষে তাঁকে ভর্তি নেওয়া হয়েছে।