কামারহাটির নন্দননগরে অজিতা ঘোষের সিন্ডিকেট দৌরাত্ম্যের শিকার একাধিক বাসিন্দা

অজিতার কীর্তির অন্ত নেই। এলাকার সর্বত্রই ছড়িয়ে আছে তার সিন্ডিকেট দৌরাত্ম্যের একাধিক উদাহরণ। তার দাপটে থরহরি কম্পমান এলাকার মানুষ। নতুন বাড়ি থেকে দোকানের উদ্বোধন। কাউন্সিলরকে ভেট না পাঠালে তার আর রক্ষা নেই। অজিতা ঘোষ ও তাঁর স্বামীর দলবলের কোপে পড়তে হবে সেই বাসিন্দাকে। কামারহাটির নন্দননগরে অজিতার সিন্ডিকেট দৌরাত্ম্যের শিকার একাধিক বাসিন্দা। সর্বত্রই তিনি স্বমহিমায় বিরাজমান। তাঁর দাপটে বাঘে গরুতে একঘাটে জল খায়। তোলাবাজিতে তিনি সিদ্ধহস্ত।

Updated By: Jul 24, 2016, 05:26 PM IST
কামারহাটির নন্দননগরে অজিতা ঘোষের সিন্ডিকেট দৌরাত্ম্যের শিকার একাধিক বাসিন্দা

ওয়েব ডেস্ক: অজিতার কীর্তির অন্ত নেই। এলাকার সর্বত্রই ছড়িয়ে আছে তার সিন্ডিকেট দৌরাত্ম্যের একাধিক উদাহরণ। তার দাপটে থরহরি কম্পমান এলাকার মানুষ। নতুন বাড়ি থেকে দোকানের উদ্বোধন। কাউন্সিলরকে ভেট না পাঠালে তার আর রক্ষা নেই। অজিতা ঘোষ ও তাঁর স্বামীর দলবলের কোপে পড়তে হবে সেই বাসিন্দাকে। কামারহাটির নন্দননগরে অজিতার সিন্ডিকেট দৌরাত্ম্যের শিকার একাধিক বাসিন্দা। সর্বত্রই তিনি স্বমহিমায় বিরাজমান। তাঁর দাপটে বাঘে গরুতে একঘাটে জল খায়। তোলাবাজিতে তিনি সিদ্ধহস্ত।

আরও পড়ুন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ মামলায় হাইকোর্টের 'মোড় ঘোরানো' রায়!

কামারহাটির ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে কান পাতলে তাকে ঘিরে এমনই গুঞ্জন, ফিসফাস।  তিনি ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অজিতা ঘোষ। নতুন বাড়ি তৈরিই বলুন, কিংবা দোকানের উদ্বোধন। কাউন্সিলরকে ভেট না দিলে রক্ষা নেই। কাজই হবে না আপনার।

নন্দননগরের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন তিনি। ভাড়াটে তুলতে সক্রিয় কাউন্সিলরের দলবল। দলীয় কার্যালয়ে নিয়ে গিয়ে মারধর করা হয় তাঁকে।

অজিতা চেয়েছিলেন ওই বাড়িতে প্রমোটিং করতে। রাজি না হওয়ায় মারধর, তোলাবাজি, হুমকি। এমনকী বাড়ির মূল ফটকটি এখন ঢাকা পড়েছে শাসকদলের হোর্ডিংয়ে। দখলদারি বজায় রাখতে তৈরি হয়েছে জলসত্র। নিজের ঘরের মেরামতির কাজ করবেন তাতেও বিপদ। হাজির অজিতার দলবল। তোলা দিতে রাজি না হওয়ায় জুটেছে পুরস্কার।

আরও পড়ুন নারদ তদন্তে চাঞ্চল্যকর মোড়!

কামারহাটির ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে অজিতার এমনই হাজারো কীর্তি। কাউন্সিলরের সিন্ডিকেট দুর্নীতি নিয়ে ক্ষুব্ধ দলের একাংশও। সবাই সব জেনেও চুপচাপ। নিষ্ক্রিয় পুলিস।